বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে দুই দিনের কর্মসূচি পালন

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৮তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটিতে দুই দিনের কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে ছিল চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ। গত ১৫ মার্চ চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পর শিশু দিবসে বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্মুক্ত মঞ্চে আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়।

আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রবিউল হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক শিব প্রসাদ সেন।

সভায় অধ্যাপক শিব প্রসাদ সেন বলেন, “বাঙালি জাতির মধ্যে স্বপ্নের জাগরণ ঘটিয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু। সেই স্বপ্ন ছিল পরাধীনতা ও শোষণের শৃঙ্খল থেকে মুক্তির স্বপ্ন। বঙ্গবন্ধু নানাভাবে নির্যাতন সহ্য করেছেন, কিন্তু স্বপ্ন থেকে পিছপা হননি। তিনি গোটা দেশের মানুষের মধ্যে সেই স্বপ্নের জাগরণ ঘটাতে পেরেছিলেন বলেই বাংলাদেশ স্বাধীনতার স্বাদ অর্জন করতে পেরেছে।”

আইন ও বিচার বিভাগের শিক্ষার্থী সাদিয়া রিফাতের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ব্যবসা ও অর্থনীতি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. তাহের বিল্লাল খলিফা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. নজরুল হক চৌধুরী, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক নন্দলাল শর্মা, সিএসই বিভাগের অধ্যাপক চৌধুরী মো. মোকাম্মেল ওয়াহিদ, বিভাগীয় প্রধান মো. ফুয়াদ আহমদ, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের প্রধান মো. মাসুদ রানা, আইন ও বিচার বিভাগের প্রধান গাজী সাইফুল হাসান, ইইই বিভাগের প্রধান মিয়া মো. আসাদুজ্জামান, ইংরেজি বিভাগের প্রধান অনিক বিশ্বাস, পরিচালক (অর্থ) মিহির কান্তি চৌধুরী ও পরিচালক (প্রশাসন) তারেক ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

পুরস্কার গ্রহণ করছেন প্রথম স্থান অধিকারী সৈয়দা খাদিজা বেগম আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. রবিউল হোসেনের এবং ভারপ্রাপ্ত উপাচার্য অধ্যাপক শিব প্রসাদ সেন এর হাত থেকে © আশরাফুল বেলাল

চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় সৈয়দা খাদিজা বেগম প্রথম, রেজওয়ানা সামি দ্বিতীয়, জয়ন্ত লাল দাস তৃতীয়, মালিহা আক্তার চতুর্থ এবং লিটন কর্মকার ও রামিসা আক্তার যৌথভাবে পঞ্চম হন। তাদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা।

পুরস্কার গ্রহণ করছেন দ্বিতীয় স্থান অধিকারী রেজওয়ানা সামি © আশরাফুল বেলাল

অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন আইন ও বিচার বিভাগের ছাত্রী সাদিয়া রিফাত। অনুষ্ঠানের শেষে ইউনিভার্সিটির কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক কমিটির পক্ষ হতে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিচারকের দায়িত্ব পালনের জন্যে ইংরেজি বিভাগের সিনিয়র লেকচারার সানজিদা চৌধুরী এবং সহকারী অধ্যাপক স্নিগ্ধা দাসকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন কমিটির সদস্য, ইইই-বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মিয়া মোঃ আসাদুজ্জামান।

ফিচার ছবি © আশরাফুল বেলাল

Related Articles