কুয়েটে ‘হাল্ট প্রাইজ অন ক্যাম্পাস’ রাউন্ডের ফাইনাল অনুষ্ঠিত

খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথবারের মতো গত শনিবার বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্টার্টআপ অ্যাক্সিলারেটর প্রোগ্রাম ‘হাল্ট প্রাইজ’-এর অন-ক্যাম্পাস রাউন্ডের গ্র‍্যান্ড ফিনালে অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা দল গঠন করে নিজেদের বিজনেস প্ল্যান বিচারক এবং শ্রোতামণ্ডলীর সামনে উপস্থাপন করেছেন।

‘হাল্ট প্রাইজ’ হলো এমন এক ইনকিউবেটর প্রোগ্রাম, যা মূলত তরুণদেরকে তাদের মেধা-মনন ব্যবহার করে সামাজিক বিজনেস প্ল্যান প্রদান করার মাধ্যমে নতুন এক আগামীর দিকে ধাবিত করতে উৎসাহিত করে। এ বছর হাল্ট প্রাইজ এমন এক সমাধান প্রদানের চ্যালেঞ্জ জানায়, যার মাধ্যমে আগামী দশকে দশ হাজার যুবকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা সম্ভব হবে।

Image Courtesy: Hult Prize at KUET

গত শুক্রবার সেমিফাইনাল রাউন্ড দিয়ে ‘হাল্ট প্রাইজ অ্যাট কুয়েট’ এর অন-ক্যাম্পাস রাউন্ডের পর্দা ওঠে। অনলাইন রাউন্ডের প্রায় সাড়ে তিনশ’ টিম এর মধ্য থেকে বাছাইকৃত ২৪টি টিম এই রাউন্ডে অংশগ্রহণ করে। ৬ জন স্বনামধন্য ব্যক্তিত্ব বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন। কাজী আইটি সেন্টার লিমিটেডের বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার জনাব রাশিক রাফিদ খন্দকার সেমিফাইনালের অন্যতম বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। ফাইনালের বিচারক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ‘ব্যাটল অব মাইন্ড’ ও ‘ব্র‍্যান্ডউইজ’-এর সাবেক চ্যাম্পিয়ন এবং সিটি ব্যাংক এর খুলনা শাখার ক্লাস্টার হেড ও সিনিয়র ব্রাঞ্চ অপারেশন ম্যানেজার হিমাদ্রি শেখর, এবং ইন্সটিটিউট অফ ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মামুনুর রশীদ।

Image Courtesy: Hult Prize at KUET

সেমিফাইনাল থেকে উত্তীর্ণ সেরা ৬টি টিম পরবর্তী দিন ফাইনালে অংশগ্রহণ করে। তারা বেকারত্ব সমস্যা সমাধানের লক্ষ্যে অর্থনীতির বিকেন্দ্রীকরণ, অনলাইন এজুকেশন, কটেজ ইন্ডাস্ট্রি, পর্যটন-সম্পর্কিত বিভিন্ন সৃজনশীল আইডিয়া উপস্থাপন করেন। আইডিয়া উপস্থাপন পর্বের শেষে প্রতিযোগীরা প্রশ্নোত্তর পর্বের মুখোমুখি হন, যার মাধ্যমে বিচারকমণ্ডলী তাদের আইডিয়াকে বিভিন্ন দৃষ্টিভঙ্গি থেকে বিচার করে সেরা আইডিয়া খুঁজে বের করার চেষ্টা করেন।

Image Courtesy: Hult Prize at KUET

অবশেষে বিচারকমণ্ডলী রানার-আপ এবং চ্যাম্পিয়ন নির্বাচিত করেন। টিম ‘Error 404’ রানার আপ হয়; ‘হাল্ট প্রাইজ অ্যাট কুয়েট ২০১৮-১৯’ এর ক্যাম্পাস ডিরেক্টর অভিষেক দে টিম Technogen এবং তাদের আশাব্যঞ্জক প্রজেক্ট ‘ওস্তাদ’কে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ঘোষণা করেন। উল্লেখ্য, বিজয়ী দল কুয়ালালামপুর, মের্লবোর্ন, সাংহাই, দুবাই, বোস্টন, লন্ডন কিংবা মুম্বাইয়ের যেকোনো একটি শহরে রিজিওনাল রাউন্ডে অংশগ্রহণ করার সুযোগ পাবে, এবং একইসাথে পাবে হাল্ট প্রাইজ ২০১৮ এর গ্লোবাল ফাইনালের অন্যতম ফাইনালিস্ট Impact Rays-এর সরাসরি মেন্টরশিপ এবং কাউন্সেলিং।

Image Courtesy: Hult Prize at KUET

চমৎকার এই আয়োজনে মিডিয়া পার্টনার হিসেবে ছিলো রোর বাংলা।

This article is in Bangla Language. It is about the 'Hult Prize at KUET 2018-19' that has taken place recently. 

Hult Prize is a partnership between Hult International Business School and the United Nations Foundation. It is also known as the 'Nobel Prize for students'.

Feature Image Courtesy: Hult Prize at KUET

Related Articles