এই লেখাটি লিখেছেন একজন কন্ট্রিবিউটর।চাইলে আপনিও লিখতে পারেন আমাদের কন্ট্রিবিউটর প্ল্যাটফর্মে।

ইংরেজি ভাষা শিখে সামাজিক মর্যাদা বৃদ্ধি কিংবা ক্যারিয়ারের উন্নতির আগের সেই দিনটি আর নেই এখন। ইংরেজি এখন হয়ে গিয়েছে একজন সচেতন মানুষের জন্য অক্সিজেনের মতোই অপরিহার্য। এটি ছাড়া দেশের বাইরে তো নয়ই, দেশের ভেতরেও সুযোগ একেবারে শূন্যের কোঠায় বলা চলে। এমতাবস্থায় ইংরেজি ভাষার জ্ঞান তো প্রয়োজনই, উপরন্ত প্রয়োজন এই বিশ্বায়নের যুগে অন্য কোনো ভাষায় পারদর্শিতা।

একাধিক ভাষার জ্ঞান শিক্ষা, চাকরি, বাণিজ্য- সকল ক্ষেত্রেই আপনাকে অন্যদের চেয়ে অনেক কদম এগিয়ে রাখবে। নতুন কোনো ভাষা শেখা আপনার মানসিক স্বাস্থ্যের জন্যও কিন্তু দারুণ উপকারী। নতুন ভাষা শেখার প্রক্রিয়ার মধ্যে মস্তিষ্কের সক্ষমতা বাড়ে, মনে রাখার ক্ষমতা বাড়ে, মাল্টি-টাস্কিং ও দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়ায় পটু তো হওয়া যায়ই [1] , উপরন্ত আলঝেইমার্স ও ডিমেনশিয়ার মতো মস্তিষ্কের রোগের ঝুঁকিও কমে [2]।

নতুন ভাষার উপকারিতার যেন শেষ নেই; Image Courtesy: Cursuri engleza Brasov

কিন্তু এত দেশের এত ভাষা থাকতে কেন পৃথিবীর সাড়ে ৬ হাজার ভাষায় মধ্যে ফরাসি ভাষাই শিখবেন? [3]

তার আগে একটু জেনে নেয়া যাক ফরাসি ভাষায় ইতিহাস নিয়ে। আজকের এই ফরাসি ভাষা মূলত অনেকগুলো ভাষা দিয়ে প্রভাবিত। সেল্ট, রোমান, গ্রিক, ফ্রাংক উপজাতি, কিছু জার্মানিক উপজাতি আর আরবদের ভাষার প্রভাবে আজকের এই ফরাসি ভাষা। মূলত ফ্রাংক উপজাতি আজকের ফ্রান্সে প্রবেশ করে সংখ্যালঘু হিসেবে এবং ধীরে ধীরে প্রভাবশালী হয়ে ওঠে। তৎকালীন ফ্রান্সে চলা ল্যাটিন ভাষার সাথে তারা তাদের ভাষাকে মিশিয়ে আধুনিক ফরাসি ভাষার প্রচলন করে। [4]

ভাষাভাষীর সংখ্যা বিচারে ফরাসি পৃথিবীর ষষ্ঠ বৃহত্তম ভাষা। সারা বিশ্বের ৭৫ মিলিয়ন মানুষের নিজের ভাষা এটি। ফ্রান্স, বেনিন, বুরকিনা ফাসো, হাইতি, লুক্সেমবার্গ ছাড়াও আফ্রিকার ১৫টি দেশের অফিসিয়াল ভাষা। কানাডা, বেলজিয়াম ও সুইজারল্যান্ডে এটি অফিসিয়াল ভাষাগুলোর মধ্যে একটি। এছাড়া মরক্কো, তিউনিসিয়া ও আলজেরিয়ায় এটি দ্বিতীয় ভাষা। [4]   

বিশ্ব মানচিত্রে ফরাসি ভাষা; Image Courtesy: Excel Academy

প্রচুর আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান দাপ্তরিক কাজ ফরাসি ভাষায় সম্পাদন করে। জাতিসংঘ সচিবালয়ের দুটো দাপ্তরিক ভাষার মধ্যে ফরাসি অন্যতম। ইউরোপীয় ইউনিয়নের তিনটি দাপ্তরিক ভাষার মধ্যে একটি হলো ফরাসি। এছাড়া ইউনেস্কো, ইউনিসেফ, ডব্লিউএইচও, ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন, ন্যাটো, রেড ক্রস, ইউরোপিয়ান কাউন্সিল, বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা, ওইসিডি, অর্গানাইজেশন ফর আমেরিকান স্টেটস, ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সি, অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল, ইন্টারন্যাশনাল অলিম্পিক কমিটি, ডক্টর্স উইদাউট বর্ডার্স ইত্যাদি প্রতিষ্ঠানে ফরাসি হলো দাপ্তরিক ভাষা। সুতরাং ভাষাটি জানলে এই প্রতিষ্ঠানগুলোতে কাজ করতে যে বাড়তি সুবিধা পাওয়া যাবে তা বলাই বাহুল্য। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পার্লামেন্টে যত আইন পাস হয়, আগে ফরাসি ভাষায় প্রকাসিত হয়, তারপর ইংরেজিতে অনুবাদ করা হয়। বিশেষ করে ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ জাস্টিস, আফ্রিকান কোর্ট অন হিউম্যান এন্ড পিপল'স রাইটস, ক্যারিবিয়ান কোর্ট অফ জাস্টিস, ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ হিউম্যান রাইটসের মতো আন্তর্জাতিক আদালতগুলোতে ফরাসিকে দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে ব্যবহার করা হয়।  

জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষার একটি হলো ফরাসি ভাষা; Image Courtesy: Contexto de Durango

পড়াশোনার ক্ষেত্রে ফ্রান্সের বিশ্বসেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তো বটেই, বরং ইউরোপ এবং কানাডার অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তির ক্ষেত্রে ফরাসি ভাষার দক্ষতা একটি বড় মাপকাঠি। রন্ধনশিল্প, ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রি, পারফিউম ইন্ডাস্ট্রিতে ফরাসি ভাষার আধিপত্য সবসময়ই ছিল। এছাড়া ফরাসি ভাষায় পারদর্শীদের বাংলাদেশ সেনাবাহিনী দোভাষী হিসেবে নিয়োগ দিয়ে জাতিসংঘ মিশনসমূহে ক্যাপ্টেন সমমর্যাদার পদে কাজ করার সুযোগ দেয় অত্যন্ত আকর্ষনীয় বেতনে। এত বিশাল সুযোগ থাকা সত্ত্বেও ফরাসি ভাষা না শেখাটা কিছুটা তো বোকামিই হবে।   

অনেকে শেখা শুরুর আগেই ভেবে বসে থাকেন হয়তো ফরাসি ভাষা অনেক কঠিন। তবে মজার ব্যপার হলো, ইংরেজির ২৯% শব্দ ফরাসি ভাষা থেকে নেয়া, যে কারণে ইংরেজির সাথে অনেক মিল পাওয়া যায় ফরাসি ভাষাতে, এবং কিছু ক্ষেত্রে ইংরেজির চেয়ে ফরাসি ভাষা শেখাটাও সহজ। এটি শেখার জন্য সবচেয়ে ভাল প্রতিষ্ঠান ফরাসি সরকারের অর্থায়নে পরিচালিত আলিয়ঁস ফ্রসেজ। আলিয়ঁস ফ্রসেজের শাখা ঢাকা ও চট্টগ্রামে রয়েছে। এখানে ইউরোপীয় পাঠ্য কাঠামোতে আড্ডা-গল্প-থিয়েটারের মাধ্যমে এমনভাবে ফরাসি ভাষা শেখানো হয় যে আপনি বুঝতেই পারবেন না কবে আপনি দক্ষ হয়ে উঠেছেন। এর বাইরেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়সহ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ইনস্টিটিউট অফ মডার্ন ল্যাঙ্গুয়েজের মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীদের ফরাসি ভাষার কোর্স অফার করা হয়।

যদি নিজে নিজে শিখতে চান সেক্ষেত্রেও কিন্তু চিন্তার কিছু নেই। রয়েছে ডুওলিঙ্গো (Duolingo)। এটি নতুন ভাষা শিখতে আগ্রহীদের জন্য যেন এক জাদুর দরজা। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ভাষা শেখার কমিউনিটি তৈরি করেছে এই অ্যাপটি। স্পেসড রিপিটেশন প্রক্রিয়ায় এমনভাবে ডুওলিঙ্গো তাদের প্রতিটি লেসন ডিজাইন করেছে যে, যে কেউ চাইলে ঘরে বসে অনায়াসেই যেকোনো ভাষা শিখে নিতে পারেন। প্লে স্টোর থেকেই অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন। 

ডুওলিঙ্গো অ্যাপে ফরাসি ভাষা শিখতে পারেন মজার ছলে; Image Courtesy: French Crazy

এমন ভাবার কোনই অবকাশ নেই যে নতুন ভাষার এত বড় সমুদ্র কীভাবে পাড়ি দিবেন। ইংরেজি ভাষাতে শব্দ আছে ৬ লক্ষ থেকে ১০ লক্ষের মতো, কিন্তু মাত্র ১০০ শব্দ ইংরেজির ৫০% কথাবার্তা জুড়ে আছে এবং মাত্র ১,০০০ শব্দ শিখে যে কেউ ৯০% ইংরেজি বুঝতে পারবে। ফরাসি কিংবা অন্য ভাষার ক্ষেত্রেও কিছু শব্দ শিখে নিয়ে মোটামুটি ভাষাটি বুঝতে পারা ও যোগাযোগ দক্ষতা তৈরি করা যায়। [6]  ভাষা শেখার আরেকটি মজার কিন্তু কার্যকরী উপায় হলো সেই ভাষার মুভিগুলো দেখা। ফরাসি সিনেমা বিশ্বের অন্যতম সেরা সিনেমাগুলোর অনেকটা জায়গা জুড়ে আছে। এভাবে ধীরে ধীরে নিজে থেকেই এগোনো অনেক সহজ হয়ে যাবে এবং কোথাও আটকে গেলে আজকের যুগে তো গুগল আছেই!

তাই, অবসর সময়ের সুযোগগুলো হেলায় না খরচ করে ফরাসি ভাষা শিখে নিজের দক্ষতাকে আরেক ধাপ উপরে নেবার কাজটি শুরু করে দিন আজই।

[ফ্রেঞ্চ ভাষাশিক্ষার বই কিনতে পারেন এই লিংকে ক্লিক করে।]