চুলের যত্নে আছে পেঁয়াজ!

চুল ঘন, কালো, লম্বা হবে তা কে না চায়? তবে আজকাল যে চুলের সমস্যা কতটা প্রকট তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না। চুলের আগা ফেটে যাওয়া, চুল পড়ে যাওয়ায়, চুল দ্রুত না বড় হওয়া ইত্যাদি সমস্যাগুলো যেন ভাবিয়ে তুলছে অনেককেই। তবে হাতের কাছে সহজ সমাধান থাকতেও চুলের এসব সমস্যা নিয়ে অযথা বসে থাকবেন তা কি হয়? খুব পরিচিত একটি প্রাকৃতিক উপাদানই হলো সেই সমাধান। পেঁয়াজের রস! জ্বি, পেঁয়াজের রস দিয়েই হবে আপনার চুলের এই সব সমস্যার সমাধান। আজকের আলোচনায় জানতে পারবেন পেঁয়াজের রস দিয়ে চুলের যত্নের দারুণ কিছু টিপস। তবে তার আগে চলুন জেনে নেয়া যাক চুলের যত্নে পেঁয়াজের রসের উপকারিতা সম্পর্কে।

চুলের বৃদ্ধিতে পেঁয়াজের রসের উপকারিতা

পেঁয়াজের রসে চুল লম্বা হবে এবং বৃদ্ধি পাবে- এ সম্পর্কে নিশ্চিত থাকুন! আজ পর্যন্ত যারাই পেঁয়াজের রস চুলের বৃদ্ধির জন্য ব্যবহার করেছেন, তারা সকলেই খুব দ্রুত ও নিশ্চিতভাবে ফল পেয়েছেন। এখানে কিছু কারণ উল্লেখ করা হলো, যার জন্য পেঁয়াজের রসকে চুলের বৃদ্ধিতে খুব কার্যকরী উপাদান হিসেবে বিবেচনা করা হয়

  • পেঁয়াজের অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট চুলের বৃদ্ধিতে সাহায্য করে। এটি হাইড্রোজেন পার-অক্সাইডকে গলতে সাহায্য করে এবং এর কারণে চুল বৃদ্ধি পায়।
  • এটি সালফারের মাত্রা বাড়িয়ে চুলের ফলিকলের পুষ্টি বাড়ায়।
  • সালফার চুল সূক্ষ্ম হওয়ার প্রবণতা কমায় এবং চুলের ভাঙন ধরা রোধ করে।
  • এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট অকালে চুল পাকা বা ধূসর হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে।
  • পেঁয়াজের জীবাণুনাশক বৈশিষ্ট্য স্ক্যাল্প বা মাথার ত্বককে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখে। এছাড়াও যেকোনো ধরনের সংক্রমণ কমায় এবং চুলের বৃদ্ধিতে কোনো বাধা থাকতে দেয় না। এই অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট খুশকি দূর করতেও সাহায্য করে।
  • পেঁয়াজের রস স্ক্যাল্পে রক্তসঞ্চালন বাড়ায় এবং ফলিকলের পুষ্টি বাড়াতে সাহায্য করে।

পেঁয়াজের রস চুলকে করবে ঘন; Image Source: Benefits of being health

চুলের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে পেঁয়াজের রসের বিভিন্ন রকম প্রয়োগ নিচে দেয়া হলো

১. চুলের বৃদ্ধিতে পেঁয়াজের রস

যা দরকার

  • ১ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস
  • কটন বল

মোট  সময়:

  • ১৫ মিনিট – ১ ঘণ্টা

প্রস্তুতির নিয়ম

  • পেঁয়াজের রসে কটন বল ভিজিয়ে নিন।
  • চুলে বিলি কেটে স্ক্যাল্পে দিন।
  • পুরো স্ক্যাল্পে দেয়া হয়ে গেলে ভালভাবে ম্যাসাজ করুন।
  • এরপর ১৫ মিনিট থেকে এক ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।
  • হালকা কোনো শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।
  • দ্রুত ফল পাওয়ার জন্য একদিন পর পর ব্যবহার করুন।

কেন এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে

  • পেঁয়াজের রস স্ক্যাল্পকে উদ্দীপিত করে রক্তসঞ্চালন ও পুষ্টি যোগায়। এটি স্ক্যাল্পের যেকোনো সমস্যা মোকাবেলা করে চুল ঘন করে ও দ্রুত বাড়তে সাহায্য করে।

২. চুলের বৃদ্ধিতে নারিকেল তেল ও পেঁয়াজের রস

যা দরকার

  • ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস
  • ২ টেবিল চামচ নারিকেল তেল
  • ৫ ফোঁটা টি ট্রি অয়েল (যদি আপনার খুশকির সমস্যা থাকে)

মোট  সময়

  • ৩০ মিনিট

প্রস্তুতির নিয়ম

  • সব উপকরণ একসাথে মিশিয়ে মিহি মিশ্রণ তৈরি করে নিন।
  • পেঁয়াজের রস ও তেলের এই মিশ্রণটি স্ক্যাল্পে ভালোভাবে লাগিয়ে কয়েক মিনিটের জন্য ম্যাসাজ করুন।
  • পুরো স্ক্যাল্পে ভালোভাবে লাগানোর পর ৩০ মিনিটের মতো অপেক্ষা করুন।
  • হালকা ধরনের যেকোনো শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • একদিন পরপর ব্যবহার করলে ভালো ফল পাবেন।

কেন এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে

  • নারিকেল তেলে রয়েছে জীবাণুনাশক বৈশিষ্ট্য। এছাড়াও এই তেলটি বেশ তীক্ষ্ণ বা অন্তর্ভেদী, যার কারণে পেঁয়াজের রস খুব সহজেই স্ক্যাল্পের ভেতর যেয়ে ঢুকতে পারে বা শোষণ করে নেয়।

নারিকেল তেল ও পেঁয়াজের রস চুলের জন্য খুব উপকারি; Image Source: Dr. Health Benefits

৩. অলিভ অয়েল ও পেঁয়াজের রস চুল বৃদ্ধি করে

যা দরকার

  • ৩ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস
  • দেড় টেবিল চামচ অলিভ অয়েল

মোট  সময়

  • ২ ঘণ্টা

প্রস্তুতির নিয়ম

  • অলিভ অয়েল ও পেঁয়াজের রস ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।
  • স্ক্যাল্পে এই মিশ্রণটি লাগিয়ে আলতোভাবে ম্যাসাজ করুন।
  • এরপর ২ ঘণ্টার জন্য রেখে দিন।
  • হালকা কোনো শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
  • চুল বৃদ্ধির জন্য একদিন পরপর ব্যবহার করুন।

কেন এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে

  • অলিভ অয়েলে রয়েছে খুশকি দূর করার বৈশিষ্ট্য। এটি চুলের কন্ডিশনার হিসেবে কাজ করে এবং চুলকে করে উজ্জ্বল ও ঝলমলে। আর পেঁয়াজের রস চুল দ্রুত বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

৪. ক্যাস্টর অয়েল চুল ঘন ও লম্বা করে

যা দরকার

  • ২ টেবিল চামচ ক্যাস্টর অয়েল
  • ২ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস

মোট  সময়

  • ১ ঘণ্টা

প্রস্তুতির নিয়ম:

  • ক্যাস্টর অয়েল ও পেঁয়াজের রস ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।
  • এই মিশ্রণটি আঙ্গুলের ডগা দিয়ে স্ক্যাল্পে ভালোভাবে কিছুক্ষণ ম্যাসাজ করুন।
  • এই মিশ্রণটি এক ঘণ্টার জন্য রেখে দিন।
  • হালকা ধরনের এই শ্যাম্পু দিয়ে দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।
  • একদিন পরপর চুলে লাগান।

কেন এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে

  • চুলের বৃদ্ধিতে ক্যাস্টর অয়েল অন্যতম। এটি চুল ঘন করতে ও স্বাস্থ্যোজ্জ্বল রাখতে সাহায্য করে। পেঁয়াজের রসের সাথে ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে ব্যবহার করলে তা চুল পড়া কমাতে এবং চুল ঘন করতে সাহায্য করে।

পেঁয়াজের রসের সাথে ক্যাস্টর অয়েল মিশিয়ে ব্যবহার করলে চুল পড়া কমে; Image Source: Dr. Weil

৫. ডিম ও পেঁয়াজের রস চুল বৃদ্ধিতে সাহায্য করে

যা দরকার

  • ১ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস
  • ১টি আস্ত ডিম
  • ২-৩ ফোঁটা রোজমেরি বা ল্যাভেন্ডার এসেনশিয়াল অয়েল
  • শাওয়ার ক্যাপ

মোট সময়

  • ২০-৩০ মিনিট

প্রস্তুতির নিয়ম

  • ডিম ও পেঁয়াজের রস একসাথে ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।
  • প্রথমে এই মিশ্রণটি স্ক্যাল্পে লাগিয়ে তারপর পুরো চুলে লাগিয়ে নিন।
  • পুরো চুল ও স্ক্যাল্পে লাগানোর পর শাওয়ার ক্যাপ দিয়ে ঢেকে নিন।
  • ২০-৩০ মিনিটের জন্য অপেক্ষা করুন।
  • ঠাণ্ডা পানি ও সালফেটবিহীন শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। আর ঠাণ্ডা পানি দিয়ে অবশ্যই চুল ধুতে হবে। নয়তো চুল থেকে ডিমের গন্ধ সহজে যাবে না।
  • সপ্তাহে ২-৩ দিন ব্যবহার করলে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

কেন এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে

  • চুলের এই প্যাকটিতে রয়েছে ডিমের পুষ্টিগুণ এবং চুল বৃদ্ধির উপকরণ পেঁয়াজের রস। ডিমের উচ্চ মাত্রার প্রোটিনের গুণাগুণ চুলের পুষ্টি বজায় রাখতে সাহায্য করে আর এর সাথে পেঁয়াজের রস মিশিয়ে ব্যবহার করলে চুল থাকে ঘন। এসেনশিয়াল অয়েল দুটো এই প্যাকের তীব্র গন্ধটি নিয়ন্ত্রণ করতে সাহায্য করে।

ডিমের উচ্চ মাত্রার প্রোটিনের গুণাগুণ চুলের পুষ্টি বজায় রাখতে সাহায্য করে; Image Source: food.ndtv.com

৬. আদা ও পেঁয়াজের রস চুলকে ঘন করে

যা দরকার

  • ১ টেবিল চামচ আদার রস
  • ১ টেবিল চামচ পেঁয়াজের রস

মোট  সময়

  • ৩০ মিনিট

প্রস্তুতির নিয়ম

  • আদা ও পেঁয়াজের রস একসাথে মিশিয়ে নিন।
  • স্ক্যাল্পে মিশ্রণটি লাগিয়ে আলতো করে ম্যাসাজ করতে থাকুন।
  • আধা ঘণ্টা এই মিশ্রণটি রেখে দিন।
  • হালকা ধরনের শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।
  • একদিন পরপর ব্যবহার করুন।

কেন এই পদ্ধতিটি ভালো কাজ করে

  • আদা জ্বালাপোড়াভাব কম করতে সাহায্য করে এবং হোমিওপ্যাথি ও চাইনিজ চিকিৎসা ব্যবস্থায় এর বিস্তৃত ব্যবহার রয়েছে। এছাড়াও এটি রক্তসঞ্চালন বৃদ্ধি করে চুল পড়া কমায় এবং চুলের মানও ভালো হয়।

ঘন চুল পেতে এই পেঁয়াজের রসের সাথে আদা ব্যবহার করতে পারেন; Image Source: Dr. Weil

Feature Image: Mysteriesvs

Related Articles