কেমন চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হন উদ্যোক্তারা?

আজকের পৃথিবী প্রতিযোগিতার যুগ। মুক্তবাজার অর্থনীতির যুগ। এই বাজারে ব্যবসা করার জন্য মানুষের সাধ্যের সবটুকু দিলেও অনেকসময় প্রতিযোগিতার কারণে টিকে থাকা মুশকিল হয়ে দাঁড়ায়। আমাদের দেশের ব্যবসার পরিস্থিতি একই, তবে এর মাত্রার সাথে স্বাভাবিকভাবেই উন্নত দেশের বাজার-ব্যবস্থার কিছুটা পার্থক্য রয়েছে। তবে সব মিলিয়ে এখানেও একজন উদ্যোক্তা যদি কোনো নতুন কাজে হাত দিতে চান, তাহলে তাকে পড়তে হয় অসংখ্য রকমের বিপত্তিতে, যার কারণে কোনো একসময় হয়তো হাল ছেড়ে দিতেও বাধ্য হন কেউ কেউ।

এমনিতেই আমাদের দেশের সামাজিক পরিবেশটা ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা বান্ধব নয়। একজন বা কয়েকজন মিলে একটি ছোট্ট কাজের মধ্য দিয়ে শুরু করে ধীরে ধীরে বড় হওয়াটা এখানে কোনো সহজ কাজ নয়। একেক সময় একেকরকম সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় এখানে উদ্যোক্তাদের। এমনকি যখন তারা একাই কাজ করেন, তখনও তাদের পোহাতে হয় হাজার রকমের ঝামেলার।

সত্যি কথা বলতে কী, যারা প্রতিদিন বাসা কিংবা অফিসের বিভিন্ন কাজের জন্য বিভিন্ন ধরনের মানুষের কাছ থেকে সেবা নেন, তারা প্রায়ই ভাবেন না যে, যিনি সেবা দিচ্ছেন তিনিও একজন মানুষ এবং তারও সম্মান-মর্যাদা প্রাপ্য। সেইসাথে উপযুক্ত মজুরি তো তার ন্যায্য অধিকার। কিন্তু অনেকসময়ই দেখা যায়, ন্যায্য মজুরি বা মর্যাদা- কোনোটাই আমরা তাদের দেই না। অথচ তাদের কাছ থেকে আমরা আশা করি সবচেয়ে ভালোমানের সেবা। একটা গ্যাসের চুলা কিংবা টেলিভিশন ঠিক করার কাজ শিখতে একজন মিস্ত্রীর নিশ্চয়ই একটা ভালোরকমের সময় দিতে হয়েছে, পরিশ্রম করতে হয়েছে, নিজেকে গড়ে তুলতে হয়েছে যেকোনো জায়গায় গিয়ে কাজ করে আসার জন্য। কিন্তু তাদের এই পরিশ্রম কিংবা যোগ্যতার কতটুকু মূল্যয়ন করি আমরা? হ্যাঁ এটাও ঠিক, যে মাত্রার পেশাদারিত্ব আমরা আশা করি এই মানুষগুলোর কাছ থেকে, সেই মাত্রায় হয়তো তারা তা দেখাতে পারেন না। স্বাভাবিক, কারণ এই পেশাদারিত্বের প্রশিক্ষণ তো আর তাদেরকে কেউ দিয়ে যায় না, যতটুকু করেন ততটুকু স্বশিক্ষা থেকেই করেন। তাহলে? একদিকে গ্রাহকদের যেমন আছে সঠিকভাবে সেবা পাওয়ার অধিকার, অন্যদিকে সেবাদাতাদের আছে উপযুক্ত পারিশ্রমিক আর মর্যাদার অধিকার। এই দুটো এক জায়গাতে এসে মিলবে কী করে?

Image Source: Sheba.xyz

এদেশেরই কিছু মানুষ এসব নিয়ে ভেবেছেন। কর্মজীবী সেবাদাতাদের প্রতি হওয়া বৈষম্যের কথা তারা চিন্তা করেছেন। সেইসাথে দেশের সাধারণ মানুষের অতি-সাধারণ চাহিদাগুলোর কথাও ভেবেছেন। সেসব ভাবনার বহিঃপ্রকাশ থেকেই হয়েছে একটি প্রতিষ্ঠানের সূচনা, যার নাম Sheba.xyz।

Sheba.xyz হলো দেশের প্রথম অনলাইন সার্ভিস মার্কেট। এখানে একজন মানুষ তার যোগ্যতা ও কর্মদক্ষতা অনুসারে অংশ নিতে পারেন উদ্যোক্তা তথা সার্ভিস প্রোভাইডার হিসেবে। আবার অন্যদিকে একজন সাধারণ গ্রাহক তার যেকোনো সমস্যার সমাধানের জন্যই এখানে এসে খুঁজতে পারেন এই সার্ভিস প্রোভাইডারদের। অর্থ্যাৎ, দুই পক্ষেরই মানুষের জন্য একটি কমন প্ল্যাটফর্ম হলো Sheba.xyz। আধুনিক সময়ের এই আধুনিকতম অ্যাপলিকেশন খুব সহজে পাল্টে দিতে পারে অসংখ্য মানুষের জীবন।

Image Source: Sheba.xyz

ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের যেটা নিয়ে সবচেয়ে বড় চিন্তা, তাদের ব্যবসার প্রসার কীভাবে হবে- সেটা নিয়ে চিন্তার দায়িত্ব নিচ্ছে Sheba.xyz নিজেই। ভালো কাজ করলে তাদের সফলতার গল্প তারা নিজেরাই তুলে আনছে সামাজিক মাধ্যমের কোটি মানুষের কাছে। আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো, এই অ্যাপ দিয়ে যখন কোনো গ্রাহক সার্ভিস নিতে যান, তখন তিনি দেখতে পারেন তার এলাকায় কোন কোন মানুষ এই সার্ভিস দিয়ে থাকেন। অর্থ্যাৎ, একজন সার্ভিস প্রোভাইডার শুধু এই একটি অ্যাপের মাধ্যমেই পৌঁছে যেতে পারেন তার এলাকার সব গ্রাহকের কাছে।

পারিশ্রমিকের বিষয়টি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এখানে। আসলে একজন গ্রাহক একদিকে যেমন বেশি টাকা গছিয়ে দিয়ে নিজে ঠকতে চান না, তেমনি একজন সেবাদাতাও চান না কম মজুরি পেতে। এই অ্যাপটিতে গেলেই দেখা যাবে, প্রতিটি কাজের জন্য কীরকম খরচ হবে, সেটা উল্লেখ করেই দেওয়া আছে। চাইলেই একজন গ্রাহক এই খরচের সাথে মিলিয়ে দেখতে পারেন কী কী সুবিধা তিনি পাচ্ছেন এর বিনিময়ে। এই যাচাইয়ের সুবিধার কারণে তিনি সহজেই সিদ্ধান্ত নিতে পারেন সার্ভিসটি নেবেন কি নেবেন না সে বিষয়ে।

Image Source: Sheba.xyz

আর যে বিষয়টি একজন মানুষ হিসেবে প্রতিটি সেবাদাতার কাছে গুরুত্ব রাখে সেটি হলো, সম্মান আর মর্যাদা। একজন মানুষ যখন সব সরঞ্জাম নিয়ে রাস্তায় ঘুরে বেড়ায় আর চিৎকার করে করে ডাকতে থাকে তার সার্ভিস নেওয়ার জন্য, তখন সেটা হয়তো তার নিজের কাছে সম্মানজ্জনক মনে না-ও হতে পারে। কিন্তু যখন Sheba.xyz এর মতো একটি আধুনিক প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে কাজ হাতে আসে, তখন সেটা একদিকে যেমন স্বস্তি দেয়, তেমনি মানুষের সাথে সম্পর্ক তৈরি করাটাও সহজ হয়।

এই যে চিন্তামুক্ত কাজ আর সম্মানের সাথে সেবা, এগুলোই তো আজকের সময়ের পরিশ্রমী ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের চাওয়া। তাদের উদ্যোগের পথে সবচেয়ে বড় এই চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলা করার জন্য যখন তারা পাশে পাচ্ছে Sheba.xyz এর মতো প্রতিষ্ঠানকে, সত্যিই সেটা মসৃণ করে দিচ্ছে তাদের চলার পথটুকুকে। Sheba.xyz এর এই উদ্যোগ অনুপ্রাণিত করবে আরও অসংখ্য উদ্যোক্তাকে, তাদের পরিশ্রমকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে।

Featured Image Source: Sheba.xyz

Related Articles