কে হবেন রিয়াল মাদ্রিদের পরবর্তী রোনালদো

দূর থেকে একটা বিমান এসে রানওয়ের মাটি গরম পিচের রাস্তাটা স্পর্শ করলো। ততক্ষণে কর্মকর্তাদের ওয়াকিটকিতে গুঞ্জন শুরু হয়ে গেছে। বিমানবন্দরের ভিতরে, তারপরও যেন টানটান উত্তেজনা। যেন কোনো ফেরারি আসামীকে ধরতে হবে। কিন্তু বিমানের দরজা খুলতেই যিনি বের হয়ে এলেন, তিনি মোটেই ফেরারি নয়। তবে তাকে পেতে হলে যেকোনো ফুটবল দল ধর্ণা দিতে চাইবে।

নামলেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। সঙ্গে তার পুত্র, বান্ধবী, মা-ও নামলেন। এগিয়ে গেলেন কর্মকর্তারা। জানালেন উষ্ণ অভ্যর্থনা। তারপর ঝা চকচকে গাড়িতে চড়ে বসলেন সিআরসেভেন। সঙ্গে বাকিরাও। আলোকচিত্রীর কিছু ছবি প্রয়োজন ছিল। সেটা জানাতেই, গাড়ির দরজা খুলে পোজ দিলেন রোনালদো। ব্যস, এভাবেই হয়ে গেল রোনালদোর ইতালি আগমন। ৯ বছর আগে হয়তো এভাবেই ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে পা রেখেছিলেন রোনালদো। এবার সেখান থেকে ইতালির জুভেন্টাসে। আপাতত এখানেই বাড়ি তার। লক্ষ্য সিরি আ’র শিরোপা।

গেল ৯ বছরে কী করেছেন রিয়াল মাদ্রিদের জন্য? যা করেছেন, তা নিঃসন্দেহে নিজের ক্যারিয়ারেই সেরা। সে কারণেই কি না রিয়াল মাদ্রিদের প্রেসিডেন্ট পেরেজ সর্বোচ্চ সনদই দিয়েছেন রোনালদোকে। তাকে নিয়ে বলেছেন, “রিয়ালের কিংবদন্তি ফুটবলার আলফ্রেডো ডি স্টেফানোর সঙ্গে রোনালদোই ক্লাবের ইতিয়াসের সেরা খেলোয়াড়।”

রিয়াল ছাড়ার আগপর্যন্ত রোনালদো ক্লাবের হয়ে খেলেছেন মোট ৪৩৮টি। গোল করেছেন ৪৫১টি, যা ক্লাবটির ইতিহাসের সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত। শিরোপা জিতেছেন ১৬টি। যার মধ্যে রয়েছে চারটি উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগ, দুটি লিগ কাপ, কোপা দেল রে দুটি, সুপারকোপা দুটি, উয়েফা সুপার কাপ দুটি ও ক্লাব বিশ্বকাপ জিতেছেন তিনবার।

জুভেন্টাসে ১০৫ মিলিয়ন ইউরোতে পাড়ি জমিয়েছেন রোনালদো। সবকিছু মিলিয়ে ৩৩ বছর বয়সী এই পর্তুগীজ তারকার অভাবটা ভালো রকম টের পাওয়ার কথা রিয়াল মাদ্রিদের। তাই তার বদলি হিসেবে কাকে দলে নেওয়া হবে তা নিয়ে গুঞ্জন রয়েছে। নাম আসছে তারকা থেকে শুরু করে উঠতি তারকা; সবার। তার মধ্যেও অন্তত ৫-৬ জনের নাম ঘুরে ফিরছে সবার মুখে মুখে।

কিলিয়াম এমবাপে (প্যারিস সেইন্ট জার্মেই)

কিলিয়ান এমবাপে; Image Source: Getty Image

১৯ বছর বয়সী কিলিয়ান এমবাপে অন্তত রবিবার রাত থেকে দারুণ সময় কাটাচ্ছেন। জিতেছেন রাশিয়া বিশ্বকাপের শিরোপা। প্যারিস সেইন্ট জার্মেই ক্লাবের হয়ে খেলছেন ধারে। মূলত তিনি মোনাকো ক্লাবে। তাকে ১৬২ মিলিয়ন ইউরো বদলি ফি দিয়ে ধার নেওয়া হয়েছে। তবে আসছে গ্রীষ্মে তাকে পাকাপাকিভাবে পিএসজিতে নেওয়া হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে।

এই তরুণের দিকে পাখির চোখ রেখেছে রিয়াল মাদ্রিদ। সেটাও আবার রোনালদোর বদলি ভাবনায়। ফ্রেঞ্চ চ্যাম্পিয়নশিপে শেষ ৪৮ ম্যাচে করেছেন ৩৩ গোল। ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলের পর তিনিই একমাত্র ফুটবলার যে এতো কম বয়সে বিশ্বকাপে জোড়া গোল করেছে। ১৯৫৮ সালের পর ৬০ বছরের ব্যবধানে সেই রেকর্ড ভেঙেছেন এই ফ্রান্স তারকা। আসরে তার মোট গোল ৪টি। সবকিছু মিলিয়ে এমবাপেকেই রিয়ালে ভেড়ানোর সর্বোচ্চ আলাপ চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানাচ্ছে স্প্যানিশ গণমাধ্যমগুলো।

ইডেন হ্যাজার্ড (চেলসি)

ইডেন হ্যাজার্ড; Image Source: Getty Image

চেলসির বেলজিয়ান তারকা মিডফিল্ডার ইডেন হ্যাজার্ডও রিয়াল মাদ্রিদে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর সাম্ভাব্য বদলি ফুটবলারের তালিকায় রয়েছেন। রাশিয়া বিশ্বকাপে তার পা থেকে এসেছে ৩ গোল। অ্যাসিস্ট করেছেন দুটি।

২৭ বছর বয়সী হ্যাজার্ড হয়তো সরাসরি রোনালদোর বদলি হবেন না। তবে তার ক্যারিয়ার কোনো না কোনোভাবে রিয়াল কর্তৃপক্ষকে তার দিকে নজর রাখতে বাধ্য করছে। ব্লুজদের হয়ে সর্বশেষ মৌসুমে গোল করেছেন ১৭টি। কিন্তু রোনালদোর চেয়েও বেশি (১৩টি) অ্যাসিস্ট করেছেন। তিনি নিজেও চান রিয়ালে যোগ দিতে। 

জাতীয় দলে দারুণ স্বাধীনতা পাচ্ছেন হ্যাজার্ড। কোচ রবার্তো মার্টিনেজ তার কাঁধে তুলে দিয়েছেন অধিনায়কত্বের দায়িত্ব, যেটা তাকে আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী করেছে।  

নেইমার জুনিয়র (প্যারিস সেইন্ট জার্মেই)

নেইমার জুনিয়র; Image Source: APF

কিলিয়ান এমবাপের চেয়েও জুভেন্টাসে যাওয়া রোনালদোর জায়গায় বদলি তালিকায় নেইমারের নাম সবচেয়ে জোরেশোরে শোনা যাচ্ছিলো। সাবেক বার্সেলোনা এই তারকা নাকি রিয়ালে খেলতেই পিএসজিতে যোগ দিয়েছেন, এমন খবরও ছেপেছিল স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমগুলো। শুধু তা-ই নয়, রিয়ালের সভাপতির সঙ্গে নেইমারের এজেন্ট; অর্থাৎ তার বাবা একাধিকবার বৈঠক করেছেন এই খবরও উঠে এসেছে।

তাই রোনালদো যখনই রিয়াল ছাড়লেন, তখনই নাম এলো নেইমারের। কিন্তু পরবর্তীতে সেই আলোচনায় ঢিমে তাল পড়েছে। কারণ রিয়ালের পক্ষ থেকে নাকি বলা হয়েছে, নেইমারকে তারা নিচ্ছে না। পিএসজির সঙ্গে তাদের সম্পর্ক ভালো বলেই নাকি এমন সিদ্ধান্ত।

এমনকি আনুষ্ঠানিক বিজ্ঞপ্তিও দিয়েছে তারা। সেখানে তারা বলেছে, “নেইমারকে রিয়াল কিনতে চাচ্ছে, এমন খবর শোনা যাচ্ছে। কিন্তু আমরা পরিস্কার করে বলছি, নেইমারের জন্য ক্লাবের পক্ষ থেকে এমন কোন প্রস্তাব দেওয়ার পরিকল্পনা এই মুহূর্তে আমাদের নেই। আমরা যদি পিএসজির  কোন  ফুটবলারদের কেনার কথা ভাবি, তাহলে আমরা ক্লাবের সঙ্গেই যোগাযোগ করবো। তাদেরকেই প্রস্তাব দেব। কারণ পিএসজির সঙ্গে আমাদের অনেক ভালো সম্পর্ক।”

তারপরও এই গুঞ্জনই শেষ পর্যন্ত সত্যি হয়। তাই ‘সম্ভাবনা’ এখনই ফেলে দেওয়ার নয়। পিএসজিতে ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে যোগ দেওয়া নেইমার ফ্রান্সের এই ক্লাবের হয়ে প্রথম মৌসুমে ২৮ গোল ও ১৬টি অ্যাসিস্ট করেছেন।

ব্রাজিলিয়ান এই তারকার সঙ্গে সরাসরি রিয়াল কর্তৃপক্ষ যোগাযোগ করেছে, এমন খবরও শোনা যায় চলতি বছরের জানুয়ারিতে। কিন্তু সেবার নিজের অবস্থান নিজেই পরিষ্কার করেছিলেন। তিনি জানিয়েছিলেন, পিএসজিতে তিনি সুখেই আছেন।

আতোঁয়ান গ্রিজম্যান (অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ)

আতোঁয়ান গ্রিজম্যান; Image Source: FIFA

ফ্রেঞ্চ স্ট্রাইকার গ্রিজম্যান এবারের রাশিয়া বিশ্বকাপে ৪ গোল করেছেন। আসরের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা তিনি। ক্লাব ফুটবলে বড় ক্লাবগুলোর ভাবনায় তিনি অনেক আগে থেকেই আছেন। সর্বশেষ মৌসুমে অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের হয়ে ২৯ গোল করেছেন তিনি। অ্যাসিস্ট করেছেন ১৫টি। তখন থেকেই নাকি তার সঙ্গে বার্সেলোনার যোগাযোগ শুরু হয়েছে।

তবে রিয়াল মাদ্রিদ রোনালদোর প্রস্থানের পর থেকে তাকে টার্গেট করছে, এমন গুঞ্জনও চলছে বেশ জোরেশোরে।

রবার্ট লেভানডফস্কি (বায়ার্ন মিউনিখ)

রবার্ট লেভানডফস্কি; Image Source: Goal.com

২০১৩ সাল থেকে এখন পর্যন্ত তিনবার বুন্দেসলিগায় গোল্ডেন বুট জিতেছেন লেভানডফস্কি। ২৯ বছর বয়সী এই ফুটবলার গোল করার ‘বিশেষ’ ক্ষমতার জন্য সুপরিচিত। ২০১৪ সালে বুরুশিয়া ডর্টমুন্ড থেকে ‘ফ্রি ট্রান্সফারে’ তিনি বায়ার্ন মিউনিখে খেলছেন। ডর্টমুন্ডে থাকাকালীন সময়ে চার মৌসুমে ১৯৫ ম্যাচে ১৫১ গোল করেছেন রবার্ট লেভানডস্কি।  

হ্যারি কেইন (টটেনহাম হটস্পার)

হ্যারি কেইন; Image Source: GiveMeSport

রাশিয়া বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৬ গোল দিয়ে গোল্ডেন বুট জিতেছেন ইংল্যান্ডের হ্যারি কেইন। টটেনহাম হটস্পারের এই খেলোয়াড়ের উপর পাখির নজর রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের।

কেবল রাশিয়া বিশ্বকাপেই নয়, ক্লাবের হয়েও দারুণ সময় কাটাচ্ছেন কেইন। প্রিমিয়ার লিগের সর্বশেষ আসরে ৩০ গোল পেয়েছেন তিনি। তার আগের তিন আসরে গোল এসেছে কম করে হলেও ২০টি। সবকিছু মিলিয়ে রিয়াল মাদ্রিদের সুনজরে রয়েছেন হ্যারি কেইন।

স্প্যানিশ জায়ান্ট ক্লাবটি দীর্ঘদিন ধরে একাধিকবার হ্যারি কেইনকে নেওয়ার ব্যাপারে ভেবেছে বলে খবর প্রকাশ করেছে স্প্যানিশ গণমাধ্যম। যদিও মাত্র একমাস আগে বর্তমান ক্লাবের সঙ্গে ৬ বছরের চুক্তি করেছেন হ্যারি কেইন। ক্লাবের সমর্থকরাও তাকে নিজেদের ‘আপন’ বলেই ভাবে। তাই কেবল রিয়াল মাদ্রিদ চাইলে হবে না, ইচ্ছে থাকতে হবে হ্যারি কেইনেরও।

ফিচার ইমেজ- Goal.com

Related Articles