ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মাঝে একটি বড় অংশ এখনও ধারণা করেন যে, ইন্টারনেট মানেই হলো ফেসবুক। ফেসবুকের বাইরেও যে সম্পূর্ণ এক ইন্টারনেট জগত রয়েছে, সেই ইন্টারনেট জগতকে যে আমরা আমাদের নিত্যদিনের কাজে নানাভাবে ব্যবহার করতে পারি সেই সম্পর্কে জানান দিতেই সাজানো হয়েছে এই লেখা। এতে রয়েছে বেশ গুরুত্বপূর্ণ ও অত্যন্ত কাজের সাতটি ওয়েবসাইটের কথা।

১) Evozi APK Downloader

Source: evozi.com

ওয়েবসাইটটি সকলের নিকট বেশ গ্রহণযোগ্য। বেশ গ্রহণযোগ্য বলার কারণ হলো, স্মার্টফোনের জয়জয়কার চারপাশে, সকলের হাতে হাতে স্মার্টফোন। স্মার্টফোনকে স্মার্ট করে তুলেছে হাজারো অ্যাপ, আর অ্যাপের বাজার বলতেই প্রথম মাথায় আসে গুগল প্লে স্টোর। সকল ফোনেই প্লে স্টোর থাকে। কেউ কেউ হয়তো অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের মডেড ভার্সন ব্যবহার করতে পারেন, সেক্ষেত্রে ইনস্টল করা না-ও থাকতে পারে। এই প্লে স্টোর চায়লেই আপনি অন্যান্য অ্যাপের মতো ইনস্টল করতে পারবেন না। আবার কিছু দেশে হয়তো আইন করে টেক জায়ান্ট কোম্পানীগুলোর সুবিধা বন্ধ করে রাখা হয়েছে। সেসব দেশ থেকে যদি স্মার্টফোন কেনেন, তাহলে গুগলের অ্যাপগুলো তাতে ইনস্টল করা না-ও পেতে পারেন।

Source: evozi.com

মোদ্দাকথা, যেকোনো পরিস্থিতিতে আপনি প্লে স্টোরের অ্যাপগুলোর এপিকে (অ্যান্ড্রয়েড সিস্টেমে সাপোর্টেড ফাইল এক্সটেনশন) ফাইল পেতে পারেন এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। বেশি কিছু করতে হবে না। আপনি প্লে স্টোরের কাঙ্ক্ষিত অ্যাপটির লিংক অথবা অ্যাপটির প্যাকেজের নাম সংগ্রহ করুন, ওয়েবসাইটে ইনপুট দিন দুটির যেকোনোটি। আপনাকে ওয়েবসাইটটি উক্ত অ্যাপের এপিকে ফাইলটির ডাউনলোড লিংক প্রদর্শন করবে।

প্লে স্টোরে কোনো অ্যাপের ডাউনলোড লিংক পেতে যদি সমস্যা হয়, তাহলে আপনার জন্য প্যাকেজ নামের ব্যবস্থা তো রইলোই। যদি কারো ফোনের কোনো অ্যাপ প্রয়োজন হয় আপনার, সরাসরি ফোনটির স্টোরেজে ‘অ্যান্ড্রয়েড’ নামের ফোল্ডারে প্রবেশ করুন। এর ভেতরে আপনি বেশ কিছু ফোল্ডার পাবেন। ‘ডাটা’ ফোল্ডারে প্রবেশ করুন। সেখানে আপনি ফোনটিতে ইনস্টল করা সকল অ্যাপের জন্য পৃথক পৃথক ফোল্ডার দেখতে পাবেন। ফোল্ডারের নামগুলোই হলো প্যাকেজ নাম। খুঁজে বের করুন আপনার পছন্দের অ্যাপের ফোল্ডারটিকে, নামটি নিয়ে নিন কেবল। এই নামটি ব্যবহার করেই ডাউনলোড করতে পারবেন আপনার পছন্দের যেকোনো অ্যাপের এপিকে ফাইলটি।

২) 10 Minute Mail

Source: 10minutemail.com

এমনটি প্রায়ই দেখা যায় যে, অপরিচিত কারো থেকে কোনো মেইল আশা করছি। কিন্তু চাচ্ছি না, অপরিচিত সেই প্রেরক আমার ইমেইল অ্যাড্রেসটি জানুক। ইন্টারনেটের জগতে পাসওয়ার্ডের সাথে সাথে মেইল অ্যাড্রেসটি গোপন রাখাটাও সমান গুরুত্ব বহন করে। এই সমস্যা থেকে মুক্তি দিতেই এই ওয়েবসাইট

Source: 10minutemail.com

ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করলেই আপনাকে পরবর্তী দশ মিনিটের জন্য একটি অস্থায়ী ইমেইল অ্যাড্রেস দেবে। এ মেইল অ্যাড্রেসটি আপনি অস্থায়ীভাবে ব্যবহার করতে পারবেন। যে কেউ আপনাকে এটি ব্যবহার করে মেইল করতে পারবে। ওয়েবসাইটে দশ মিনিটের সময়সীমাতে একটি ঘড়ি চলতে থাকবে। আপনি যদি ইচ্ছা করেন দশ মিনিটের চেয়ে আরো বেশি সময় প্রয়োজন, তবে কষ্ট করে রিসেট বোতাম চাপতে হবে, এই বোতামে চাপলেই ঘড়িটি আবারো দশ মিনিট থেকে উল্টো চলতে শুরু করবে। মেইল পাবার পর আপনি রিপ্লাই কিংবা ফরওয়ার্ডের কাজটাও সেরে নিতে পারবেন।

৩) Camel Camel Camel

Source: camelcamelcamel.com

যারা অ্যামাজন থেকে কেনাকাটা করেন কেবলমাত্র তাদের জন্যই এই ওয়েবসাইটটি উপকারে আসবে। অ্যামাজনে কোটি কোটি প্রোডাক্ট, একই প্রোডাক্ট ভিন্ন ভিন্ন দাতার নিকট ভিন্ন দামে পাওয়া যাবে। আবার কখন কোন প্রোডাক্টটিতে বিশেষ মূল্যছাড় চলছে তা-ও জানার কোনো উপায় নেই অ্যামাজনে। এসকল সমস্যা থেকে মুক্তির জন্যেই তৈরি করা হয়েছে এই ওয়েবসাইটটিকে

Source: camelcamelcamel.com

একটি প্রোডাক্ট সর্বনিম্ন কম দামে অ্যামাজনে যে দাতার নিকট পাওয়া যাবে, সেটিই আপনাকে প্রদর্শন করবে। এছাড়া আপনি একটি অ্যাকাউন্ট খুলে কাঙ্ক্ষিত একটি প্রোডাক্টকে মার্ক করে রাখতে পারবেন। প্রোডাক্টটির দামে কবে ছাড় দেয়া হবে সেই ব্যাপারে যাতে আপনাকে অ্যালার্ট করা হয় সেই ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে এতে। এছাড়াও প্রতি প্রোডাক্টের সাথে একটি করে গ্রাফ জুড়ে দেয়া আছে। গ্রাফটিতে দেখানো হবে বছরের কোন কোন সময়ে প্রোডাক্টটির মূল্যে কমেছে, কত কমেছে। এসবের খোঁজ পেয়ে যাবেন আপনি ওয়েবসাইটটি থেকে।

Source: camelcamelcamel.com

৪) Online Etymology Dictionary

Source: etymonline.com

কোনো শব্দের উৎপত্তি কবে কার মাধ্যমে হয়েছে সেসব তথ্যের অনলাইন অভিধান হলো এই ওয়েবসাইট। ইংরেজী কোনো শব্দের উৎপত্তি আপনার জানা প্রয়োজন? আপনি শুধু সার্চবারে শব্দটি লিখুন। ওয়েবসাইটটি নিজ থেকেই বাকি সব কাজ করে দেবে।

৫) Mathway

Source: mathway.com

এই ওয়েবসাইট ব্যবহার করে গণিতের যেকোনো শাখার কঠিন থেকে কঠিনতর যেকোনো সমস্যার উত্তর খুঁজে নিতে পারবেন। আপনাকে কষ্ট করে শুধুমাত্র একটি গণিতের পুরো সমীকরণ লিখতে হবে। লেখার সঙ্গে সঙ্গে আপনি আপনার উত্তর পেয়ে যাবেন। এতে আপনি বীজগণিতের সাথে সাথে ত্রিকোণমিতি, ক্যালকুলাস, পরিসংখ্যান, লেখচিত্র, গাণিতিক রসায়ন সহ যেকোনো ধরনের হিসেব নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

Source: mathway.com

৬) Is It Down Right Now

Source: isitdownrightnow.com

কখনো কখনো দেখা যায় যে, প্রয়োজনীয় একটি ওয়েবসাইটে প্রবেশ করা যাচ্ছে না। এর অনেক কারণ হতে পারে। কারণটি যা-ই হোক, প্রথমেই নিশ্চিতভাবে বোঝা যায় না যে কেন প্রবেশ করা যাচ্ছে না। আপনার কম্পিউটারে সমস্যা হতে পারে, রাউটার ব্যবহার করলে রাউটার থেকে ব্লক করা থাকতে পারে। কিংবা আপনার ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার হয়তো ব্লক করে রেখেছে। এছাড়া সাইটটির নির্মাতা প্রতিষ্ঠান যদি সত্যি সত্যি বন্ধ করে রাখে, সেক্ষেত্রেও নিশ্চিত হবার কোনো উপায় নেই। এসকল সমস্যা থেকে মুক্তি দিতেই তৈরি করা হয়েছে এই ওয়েবসাইটটি

একটি সচল থাকা ওয়েবসাইট; Source: isitdownrightnow.com

একটি অচল থাকা ওয়েবসাইট; Source: isitdownrightnow.com

এতে প্রবেশ করে সার্চবারে আপনার কাঙ্ক্ষিত কোনো ওয়েবসাইটের অ্যাড্রেস লিখুন, মুহূর্তের মাঝে আপনাকে কারণটি দেখিয়ে দেবে। সাইটটি চলছে কিনা, বন্ধ থাকলে সবার জন্য বন্ধ নাকি আপনি একাই ভুক্তভোগী+ এসবই জানা যাবে এখান থেকে। এছাড়াও শেষবার সাইটটি কবে বন্ধ ছিলো, সাইটটিতে পিং টেস্ট করে সেই টেস্টের ফলাফল গ্রাফে দেখানোর ব্যবস্থাও রয়েছে।

৭) Deseat Me

Source: Deseat.me

একটি গুগল অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে বর্তমানে ইন্টারনেট জগতে রাজত্ব করা যায়। ইমেইল অ্যাড্রেস বলতে আজকাল সবার পছন্দের শীর্ষে জিমেইলের নামই চলে আসে। এই ওয়েবসাইটটি যখন যাত্রা শুরু করে তখন কেবল একটি জিমেইল অ্যাড্রেস ব্যবহার করে এর সুযোগ সুবিধা পাওয়া যেত, তবে বর্তমানে জিমেইলের পাশাপাশি মাইক্রোসফট প্রদত্ত ইমেইল সেবাগুলো আপনি ব্যবহার করতে পারবেন।

Source: Deseat.me

Source: Deseat.me

ইন্টারনেটে আমরা একটি ইমেইল অ্যাড্রেস ব্যবহার করে প্রচুর ওয়েবসাইটে অ্যাকাউন্ট তৈরি করে থাকি। এই ওয়েবসাইটটিতে আপনি আপনার ইমেইল ব্যবহার করে লগইন করলে দেখতে পাবেন যে, এ পর্যন্ত এই অ্যাড্রেসটি ব্যবহার করে আপনি কতগুলো অ্যাকাউন্ট নিবন্ধন করেছেন। তালিকা থেকে আপনি ইচ্ছে করলে নির্দিষ্ট একটি অ্যাকাউন্ট ডিলিট করেও দিতে পারবেন। আপনি যদি চান, ইন্টারনেট থেকে আপনার ছাপ মুছে ফেলবেন, পুরোপুরি হয়তো পারবেন না, তবু অ্যাকাউন্টগুলো আলাদা করে খুঁজে নিয়ে ডিলিট করার চেয়ে এই ওয়েবসাইট ব্যবহারের মাধ্যমে এক ক্লিকেই ডিলিট করে দিতে পারবেন।

Source: accountkiller.com

Source: accountkiller.com

এ ওয়েবসাইটে ইমেইল দিয়ে লগইন করলে আপনার ব্যক্তিগত তথ্যসহ ইমেইলের সাথে সম্পৃক্ত সবকিছুতে প্রবেশ করবার অনুমতি চাইবে। আপনি যদি ইন্টারনেট নিরাপত্তা নিয়ে সচেতন হয়ে থাকেন তবে অ্যাকাউন্টকিলার ওয়েবসাইটটি ব্যবহার করেও কাজটি করতে পারেন। এতে প্রায় সব ওয়েবসাইটের অ্যাকাউন্ট কীভাবে ডিলিট করতে হবে সেই ব্যাপারে বিস্তারিত বলা হয়েছে।

প্রচুর প্রয়োজনীয় ওয়েবসাইট রয়েছে পুরো ইন্টারনেট জগতজুড়ে। নিত্যদিনের কাজগুলো হয়তো সেই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সহজ হয়েও উঠতে পারে। সেই ওয়েবসাইটগুলো থেকেই অল্প কয়টি সম্পর্কে বলা হলো এই লেখায়। ধীরে ধীরে অন্যান্য আরো ওয়েবসাইটের সম্পর্কেও বলা হবে।

ফিচার ইমেজ: ncmborz.com