প্রয়োজনীয় যে ৫টি অ্যাপের দেখা মিলবে না প্লে স্টোরেও

অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমে চলবে এমন কিছু অ্যাপ নিয়ে আজ আলোচনা করা হবে যাদের দেখা মিলবে না গুগলের প্লে স্টোরেও। বিশ্বাস রাখুন, অ্যাপগুলো আপনার অনেক উপকারে আসবে। হয়তো মনে মনে এগুলোই এতোদিন খোঁজ করেছেন। হাজারো অ্যাপ মার্কেট থাকা সত্ত্বেও অ্যাপ মার্কেট হিসেবে প্রথমেই আমাদের মনে পড়বে প্লে স্টোরের কথা। প্লে স্টোরের সাথে বাকিগুলোর আসলেই তুলনা চলে না। তবে আজকের আলোচ্য অ্যাপগুলোর মাঝে একটি ভিন্নধর্মী অ্যাপ মার্কেট নিয়েও আলোচনা করা হবে।

ওপেন সোর্স অ্যাপের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে হয় শুরুতে। কেউ কেউ হয়তো এই ওপেন সোর্স শব্দটির সাথে পরিচিত, কেউ হয়তো পরিচিত নন, কেউ কেউ হয়তো ভুলভাবে পরিচিত।

Source: larrylai.com

যা-ই হোক, আজকের আলোচ্য বিষয়ে ওপেন সোর্স ধারণাটি থাকছে না, তবে এটুকু বলে রাখি, এই অ্যাপগুলোর সোর্স তথা কীভাবে তৈরি করা হয়েছে অ্যাপটি সেটি উন্মুক্ত করে দেয়া থাকে ওপেন সোর্স অ্যাপের ক্ষেত্রে। যে কেউ ইচ্ছে করলে সেই সোর্স দেখে নিতে পারবেন, সেই সোর্সকে পরিবর্তন-পরিবর্ধন করে নিতে পারবেন।

প্লে স্টোরের অধিকাংশ অ্যাপের সোর্স আপনি পাবেন না। ওপেন সোর্স অ্যাপগুলোর ডেসক্রিপশনে সোর্সকোডের ডাউনলোড লিংক দেয়া থাকে। বাকি সকল অ্যাপ আপনাকে ফ্রী-তে ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হবে, কিংবা সামান্য অর্থের বিনিময়ে ব্যবহারের অনুমতি দেয়া হবে; কিন্তু একটি অ্যাপের সোর্স ডেভেলপারের নিজস্ব সম্পত্তি। সেখানে আপনার কোনো হস্তক্ষেপ থাকবে না। এখানেই হলো পার্থক্য একটি ওপেন সোর্স ও নন-ওপেন সোর্স অ্যাপের মাঝে। আজকের আলোচ্য ৫টি অ্যাপের মাঝে প্রথম ৪টি হলো ওপেন সোর্স। অবশিষ্ট সর্বশেষ অ্যাপটি খুব সম্ভবত ওপেন সোর্স নয়, তবে বিনামূল্যেই পাবেন আপনি ওয়েবসাইটে। কোনো অ্যাপের জন্যই আপনাকে অর্থ গুণতে হবে না। অ্যাপগুলো আপনি প্লে স্টোরে পাবেন না, কিন্তু খুব কাজে আসবে আপনার, এই ব্যাপারে বলে রাখা যেতে পারে।

১) এফ-ড্রয়েড

Source: forum.f-droid.org

হাজারো ওপেন সোর্স অ্যাপগুলোকে কেন্দ্র করেই গড়ে উঠেছে একটি অ্যাপ মার্কেট, নাম যার এফ-ড্রয়েড।

অ্যাপ মার্কেট কিংবা অ্যাপগুলো হয়তো দেখতে অত সুন্দর হবে না, অতটা দৃষ্টিনন্দন মনে হবে না আপনার কাছে। কিন্তু কাজ কিংবা দক্ষতার দিক থেকে এগুলোর দিকে প্রশ্ন তুলতে পারবেন না আপনি। এই অ্যাপগুলোকে ডেভেলপাররা নিজেদের মুক্তবিশ্বের আন্দোলনের একটি অংশ হিসেবে দেখেন। এখানে তাদের অর্থ উপার্জনের কিছু নেই। তাই অ্যাপগুলো তৈরির ক্ষেত্রে সৌন্দর্যের চেয়ে দক্ষতার দিকেই বেশি নজর দেয়া হয়।

নিঃসন্দেহে আপনি এই অ্যাপ মার্কেটটি একবার ব্যবহার করে দেখতে পারেন। এতে যেসকল অ্যাপ পাবেন তা ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আজকের আলোচ্য বাকি অ্যাপগুলো আপনি প্লে স্টোরে না পেলেও এই এফ-ড্রয়েড মার্কেটে ঠিকই পেয়ে যাবেন। তবু প্রতিটি অ্যাপের সাথে অ্যাপটির ডেভেলপারদের ওয়েবসাইট সংযুক্ত থাকবে, সেখান থেকে সরাসরি আপনি এপিকে ফাইল ডাউনলোড করে নিতে পারবেন, যদি কেউ এই অ্যাপগুলোর সোর্স দেখতে আগ্রহী হয়ে থাকেন, সেগুলোর লিংকও ওয়েবসাইটে পেয়ে যাবেন।

এই ওয়েবসাইট থেকে আপনি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন এফ-ড্রয়েড অ্যাপ মার্কেটটি। যেহেতু প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করছেন না সেহেতু একটি বিষয়ে বলে রাখা ভালো। অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোতে ডিফল্টভাবে প্লে স্টোরের বাইরে থেকে কোনো অ্যাপ ইনস্টল করার অপশনটি বন্ধ থাকে। তাই আপনাকে কষ্ট করে সেটিংস থেকে Unknown Source থেকে যাতে ইনস্টল করতে পারেন সেটি চালু করে দিতে হবে। তাহলেই আপনার সদ্য ইনস্টলকৃত এফ-ড্রয়েডের এপিকে ফাইলটি আপনি স্মার্টফোনে ইনস্টল করে নিতে পারবেন।

২) ব্লকাডা

Source: modapks.net

এই অ্যাপটির কাজ হলো ব্লক করা, নামেই বংশের পরিচয়। কী ব্লক করে বলবার আগে জানতে হবে কী কী ব্লক করে না এটি। তার আগে বলতে হয়, আপনি হয়তো মনে মনে এমনই একটি অ্যাপ খোঁজ করছিলেন এতদিন। আপনার চোখের সামনে ছিলো না, প্লে স্টোরে থাকলে হয়তো আপনার চোখে পড়তো একদিন। কিন্তু এটি পাওয়া যাবে কেবলমাত্র এফ-ড্রয়েডে। এছাড়া সরাসরি আপনি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন এই ওয়েবসাইট থেকে।

Source: blokada.org

ওপেন সোর্স এই অ্যাপটির কাজ হলো অ্যাড ব্লক করা। কম্পিউটারে ওয়েব ব্রাউজারে অ্যাড ব্লক প্লাস এক্সটেনশনটি আশা করি সবাই ব্যবহার করে থাকবেন। এই এক্সটেনশনটি হাতে পেয়ে আপনার যেমন অনুভূতি হয়েছিলো, স্মার্টফোন এই ব্লকাডা অ্যাপটি পেয়েও তেমনি অনুভূতি তৈরি হবে আপনার হাতে। অ্যাড ব্লক প্লাস এক্সটেনশনটিও কখনো কখনো ব্যর্থ হয়। কিন্তু ব্লকাডাতে এমন হবে না।

অ্যাপটিতে আপনি যখন প্রবেশ করবেন, আপনার কাছে মনে হতে পারে এ তো কিছুই না! এর ইন্টারফেসের ব্যাপারে মাথা না ঘামিয়ে এটি আপনি সচল করে দিন শুধুমাত্র। এতে অনলাইন অপশন পাবেন, সেটিও সচল করে দিন। তাহলে আপনার স্মার্টফোনে থাকা সকল অ্যাপ যতগুলো অ্যাড দেখাতে চাইবে সবগুলো ব্লক করতে থাকবে। অনলাইন অপশনটি চালু থাকার দরুণ আপনার ওয়েব ব্রাউজারে যদি কোনো ওয়েবসাইট অ্যাড দেখাতে চায়, সেগুলোও ব্লক হয়ে যাবে। যারা ব্যবহার করবেন তাদের জন্য একটি পরামর্শ রইলো, নোটিফিকেশন অপশনটি বন্ধ করে দিন। সারাদিনে এত এত অ্যাড ব্লক করবে অ্যাপটি যে, প্রতিটির জন্য পৃথক পৃথক নোটিফিকেশনে আপনি বিরক্ত হয়ে উঠতে পারেন। খুবই সাধারণ এক ইউজার ইন্টারফেস, আপনার ব্যবহার করতে একটুও কষ্ট হবে না।

৩) অ্যাডঅ্যাওয়ে

Source: news4c.com

এই অ্যাপটির নামেও এর পরিচয় রয়েছে, এটি উপরে বর্ণিত ব্লকাডার মতোই, একই কাজ করে থাকে। অ্যাডভান্স লেভেলে কেউ যদি অ্যাড ব্লক করতে চান তবে এই অ্যাপটি আপনাদের জন্যে। এই ওয়েবসাইট থেকে আপনি অ্যাপটি ডাউনলোড করতে পারবেন, একইসাথে সোর্সও পেয়ে যাবেন। আর ডাউনলোডের জন্যে এফ-ড্রয়েড তো রইলোই।

এই অ্যাপটি ব্যবহার করতে হলে আপনার স্মার্টফোনে রুট অ্যাক্সেস প্রয়োজন হবে। স্মার্টফোনের রুট অ্যাক্সেস কেনার সময় থাকে না। সেই রুট অ্যাক্সেস নিতেও অনেক ঝামেলা। যাদের ফোনে রুট অ্যাক্সেস নেয়া আছে কিংবা রুট অ্যাক্সেস নিতে পারবেন, তারা এই অ্যাপটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আর যারা জানেন না তাদের জন্য ব্লকাডা থাকলো। ব্লকাডা খুবই দক্ষ একটি অ্যাপ।

৪) পপকর্ন টাইম

Source: popcorn-time.to

অ্যাপটি আপনাকে সরাসরি এই ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নিতে হবে। এর সোর্সটি আপনি ওয়েবসাইটেই পেয়ে যাবেন। পপকর্ন টাইম, পপকর্ন খেতে পারবেন আপনি অ্যাপটি ব্যবহারের সাথে সাথে। অর্থাৎ সকল ডিজিটাল মিডিয়া এতে পাবেন আপনি। সকল ডিজিটাল মিডিয়া এতে এইচডি পেয়ে যাবে। যেকোনো ভাষার চলচ্চিত্র থেকে শুরু করে টিভি সিরিজ, যা খুশি আপনি যেকোনো ভাষার সাবটাইটেল দিয়ে দেখে নিতে পারবেন এতে। টরেন্ট থেকে ডিজিটাল ভিডিও কন্টেন্ট ডাউনলোড নিয়ে ভাবতে হবে না আর। এই অ্যাপ থেকে আপনি সেটিও করে নিতে পারবেন খুব সহজেই।

এর সবথেকে বড় সুযোগ হলো অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মের পাশাপাশি আপনি ম্যাকিন্টোশ, উইন্ডোজ, আইওএস এবং লিনাক্স প্ল্যাটফর্মের জন্যও পাবেন।

৫) ফ্রিফ্লিক্স এইচকিউ

Source: androidaba.com

এই অ্যাপটি পপকর্ন টাইমের মতোই কাজ করে থাকে, তবে কিছু বাড়তি ফিচারও রয়েছে এতে। অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মের পাশাপাশি এই অ্যাপটি আপনি ম্যাকিন্টোশ ও উইন্ডোজের জন্যেও পেয়ে যাবেন। একে বলা হয় নেটফ্লিক্স বিনামূল্যের ভার্সন। নেটফ্লিক্সের মতো সমস্ত ডিজিটাল কন্টেন্ট হয়তো পাবেন না এতে, তবে ইন্টারনেট জগৎজুড়ে ভিন্ন ভিন্ন সার্ভারের যেখানে যে চলচ্চিত্র কিংবা টিভি সিরিজের এইচডি প্রিন্ট পাওয়া যায়,  সবগুলোর নথিভুক্তি দেখতে পাবেন এই অ্যাপে। এই অ্যাপটি সাবটাইটেল নিজে থেকেই খুঁজে নেবে, অনেকগুলো সার্ভার থেকে আপনি পছন্দ করে নিতে পারবেন। এছাড়াও আপনি ডাউনলোড করার সুযোগ পাবেন এতে। নির্দিষ্ট কিছু অঞ্চলের আইপি টিভি দেখার সুযোগ পাবেন এখানে। এই অ্যাপটি গুগলের ক্রোমকাস্টে সাপোর্ট করবে। অ্যানিমে, টিভি সিরিজ টাইম-টেবিল সহ ডব্লিউডব্লিউই ফাইটগুলো পর্যন্ত দেখতে পারবেন এতে।

ফিচার ইমেজ: incurs.us

Related Articles