স্যামসাং স্মার্টফোনের ওয়ান ইউআই: সেরা দশ ফিচার

স্যামসাং স্মার্টফোনের বহুল প্রচলিত অ্যান্ড্রয়েড ভিত্তিক স্যামসাং এক্সপেরিয়েন্স (Samsung Experience) ইউআই এখন পুরনো এক অতীত। সময়ের সাথে সাথে একদিকে স্যামসাং স্মার্টফোন নবনব ফিচারে আধুনিক হয়েছে, ঠিক তেমনি প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে স্যামসাং নিয়ে এসেছে ওয়ান ইউআই (One UI)। স্টক অ্যান্ড্রয়েডের বাইরে ওয়ান ইউআই এখন অন্যতম সেরা এবং স্বয়ংসম্পূর্ণ একটি অ্যান্ড্রয়েড ইউআই।

স্যামসাং এক্সপেরিয়েন্সের পুরনো বেশকিছু ফিচারের সাথে ওয়ান ইউআই-এ বেশ কয়েকটি জনপ্রিয় এবং আধুনিক ফিচার সংযুক্ত হয়েছে। স্যামসাং স্মার্টফোনের ওয়ান ইউআই-এর সেরা দশ ফিচার নিয়েই আজকের আয়োজন। 

স্যামসাং ডেক্স

স্যামসাং ওয়ান ইউআইযুক্ত স্মার্টফোনে এখন পিসিকেন্দ্রিক সুবিধা পাওয়া সম্ভব। স্যামসাং স্মার্টফোনের এই ফিচারের নাম হচ্ছে ‘ডেক্স’ (Samsung DeX)। ব্যবহারকারী তার স্যামসাং ওয়ান ইউআই স্মার্টফোনটি বড় ডিসপ্লে বা মনিটরে যুক্ত করে পিসি হিসেবে ব্যবহার করতে পারবেন।

ওয়ান ইউআই-এর অনন্য এক ফিচার স্যামসাং ডেক্স; Image Source: Android Authority 

এক্ষেত্রে উল্লেখ্য, স্যামসাং ডক্স উপভোগ করতে ব্যবহারকারীদের মাইক্রোসফটের মতো কোন হাব বা ডক ব্যবহার করতে হবে না। ব্যবহারকারী তার স্মার্টফোনটি শুধু একটি এইচডিএমআই অ্যাডাপ্টারের মাধ্যমে কোন ডিসপ্লে কিংবা মনিটরের সাথে সংযুক্ত করতে পারবেন।

এমনকি কোন বাহ্যিক ডিসপ্লেতে সংযুক্ত অবস্থায়ও ব্যবহারকারী তার স্মার্টফোনটি স্বাভাবিকভাবে ব্যবহার করতে পারবেন। অর্থাৎ, এক্ষেত্রে স্মার্টফোন থেকেই পিসি কেন্দ্রিক উপযোগিতা পাওয়া সম্ভব।

ওয়ান ইউআই কেন্দ্রিক এই ডেক্স ফিচারটি সব স্যামসাং স্মার্টফোনে পাওয়া যাচ্ছে না। গ্যালাক্সি এস৮ এবং নোট৮ পরবর্তী  ফ্ল্যাগশিপ সিরিজই শুধুমাত্র এই মুহূর্তে স্যামসাং ডেক্স ফিচারটি সমর্থন করে।

বিশেষ সুরক্ষা ফোল্ডার

ওয়ান ইউআই ব্যবহারকারীরা এখন তাদের স্যামসাং স্মার্টফোনের যেকোনো ব্যক্তিগত মিডিয়া, ডকুমেন্ট, অ্যাপ কিংবা সংবেদনশীল তথ্য সুরক্ষা ফোল্ডারের মাধ্যমে নিরাপদ রাখতে পারবেন। বিশেষ এই ফোল্ডার পিন কোড দিয়ে সুরক্ষিত রাখার ব্যবস্থা রয়েছে।

থাকছে বিশেষ সুরক্ষা ফোল্ডার; Image Source: Android Authority 

অ্যান্ড্রয়েডের জন্য ফিচারটি নতুন না হলেও স্যামসাং ওয়ান ইউআই স্মার্টফোনের জন্য এটি গুরুত্বপূর্ণ নতুন এক সংযোজন। বিশেষ পিনকোড ছাড়াও ফিঙ্গারপ্রিন্ট, এমনকি আইরিশ সুরক্ষার মাধ্যমে এই ফোল্ডার সুরক্ষিত রাখার ব্যবস্থা থাকছে।

অ্যান্ড্রয়েড শেয়ারিং মেন্যু কিংবা এই ফোল্ডারের অ্যাড অ্যাপস/অ্যাড ফাইলস অপশন থেকে কাঙ্ক্ষিত তথ্য বা ডেটা/মিডিয়া এই ফোল্ডারে সহজেই যুক্ত করা যাবে।  

লিফট টু ওয়েক

লিফট টু ওয়েক ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েডে অনেকদিন ধরে থাকলেও স্যামসাং ওয়ান ইউআই ইন্টারফেসে ফিচারটি ছিল না। নতুন ইউআই সংস্করণে ব্যবহারকারীরা এখন থেকে ‘লিফট টু ওয়েক’ কার্যকারিতা উপভোগ করতে পারবেন।

লিফট টু ওয়েক সেটিংস; Image Source: Android Authority 

লিফট টু ওয়েক হচ্ছে স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে কোন বাটন বা আনলক বাটন ব্যবহার না করেই স্মার্টফোন আনলক করার একটি ফিচার। এক্ষেত্রে ব্যবহারকারী তার ফোনটি হাতে নিলেই এটি আনলক হয়ে যাবে। দৈনন্দিন ব্যবহারে এটি কিন্তু বেশ কাজের একটি ফিচার।

বিক্সবি বাটন

ওয়ান ইউআই স্মার্টফোনে এখন থেকে ব্যবহারকারীরা চাইলেই স্যামসাং ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট বিক্সবি এড়িয়ে যেতে পারবেন। আগের ইউআই-এর ক্ষেত্রে এটি সম্ভব না হলেও নতুন সংস্করণে অনেকাংশে ডিজেবল করে রাখা যেতে পারে।

বিক্সবি’র বদলে অন্য অ্যাপ বা ভয়েস অ্যাসিস্ট্যান্ট ব্যবহার করা যেতে পারে; Image Source: Android Authority 

এক্ষেত্রে স্যামসাং ব্যবহারকারীকে বিক্সবি পুরোপুরি ডিজেবল কিংবা আনইন্সটল করে দেবার স্বাধীনতা দেয়নি, তবে সেটিং থেকে একে সিঙ্গেল ট্যাপের বদলে ডাবল-ট্যাপে চালু করার অপশনে পাঠিয়ে দেওয়া যেতে পারে। এক্ষেত্রে সিঙ্গেল ট্যাপে গুগল অ্যাসিস্ট্যান্ট বা এজাতীয় পছন্দের কোনো অ্যাপ সেট করে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে।

গেম টুলস এবং গেম লাঞ্চার

স্মার্টফোনে বিশেষায়িত গেমিং ফিচার চালু করতে স্যামসাং বরাবরই প্রথম সারির একটি স্মার্টফোন ভেন্ডর। প্রতিষ্ঠানটির দেখানো পথ ধরেই এখন অধিকাংশ স্মার্টফোন কোম্পানি তাদের স্মার্টফোনগুলোতে ‘বিশেষ গেম টুলস ব্যবস্থাপনা’ চালু করেছে।

গেমস লঞ্চার হচ্ছে স্যামসাং স্মার্টফোনে ইনস্টল করা গেমসমূহের জন্য সুনির্দিষ্ট একটি ফোল্ডার। ব্যবহারকারী চাইলে তার স্মার্টফোনে ইনস্টল করা গেমগুলো নিজে থেকেও একটি ফোল্ডারে সাজিয়ে নিতে পারেন। কিন্তু গেম লঞ্চার নিজে থেকেই ইনস্টল করা গেমসের জন্য সুনির্দিষ্ট ফোল্ডার তৈরি করে নেয়।

গেম টুলস অপশন এবং গেম লঞ্চার; Image Source: Android Authority 

অন্যদিকে, স্যামসাং গেমস টুল মূলত দুটি বিশেষ আইকনের সমষ্টি, যা থেকে গেম সম্পর্কিত যাবতীয় সেটিংস সুনির্দিষ্টভাবে ঠিক করে নেওয়া যায়।

বামপাশের আইকনটি থেকে মাল্টি-অ্যালার্ট এবং ডানপাশের আইকনটি থেকে গেমের পারফরমেন্সজনিত সকল বিষয় টুইক করে নেওয়া সম্ভব। এই অপশন থেকে একটি গেমের যথাযথ ব্যালান্স, পাওয়ার সেটিং এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলো পছন্দমতো সমন্বয় করে নেওয়া যায়।

ওয়ান ইউআই ইন্টারফেসে প্রত্যেকটি গেমের সেটিংস নিজের ইচ্ছামতো পরিবর্তন করে নেওয়ার সুযোগ রয়েছে। যেমন- আপনি যদি শুধুমাত্র পাবজি গেমের জন্য ‘হাই পারফরম্যান্স’ মোড সুনির্দিষ্ট করতে চান, তবে এই সেটিংস থেকে এটি করা সম্ভব। এমনকি এখান থেকে এফপিএস সেটিংস এবং গেমের রেজোলিউশন ইচ্ছামতো কমিয়ে-বাড়িয়ে নেওয়া যায়।

ডার্ক মোড

স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের কাছে ডার্ক মোড এখন অত্যন্ত আকর্ষণীয় একটি ফিচার। অধিকাংশ স্মার্টফোন ভেন্ডর ইউআই এবং অ্যাপের ক্ষেত্রে এখন একটি ডার্ক মোড ব্যবহারের সুযোগ রাখছে। ওয়ান ইউআইতে ব্যবহারকারীদের জন্য সিস্টেম-হোয়াইড ডার্ক মোড ব্যবহারের সুযোগ থাকছে।

থাকছে ডার্ক মোড; Image Source: Android Authority 

 সেটিংস> ডিসপ্লে> নাইট মোড অপশন থেকে কেউ চাইলে এই ডার্ক মোড চালু করে নিতে পারেন। এমনকি, ব্যবহারকারী চাইলে অ্যালার্মের মতো করে সেটিংস থেকে এই মোডের জন্য রাতের বেলায় সুনির্দিষ্ট একটি সময় বেঁধে দিতে পারেন।   

জেসচার ন্যাভিগেশন

বর্তমানে স্মার্টফোনগুলোর অপেক্ষাকৃত বড় এবং লম্বা পর্দার জন্য বিভিন্ন ধরনের জেশ্চার নেভিগেশন রয়েছে। স্যামসাং-এর ওয়ান ইউআইও এই থেকে পিছিয়ে নেই।

স্যামসাং এক্ষেত্রে বরং বেশ ব্যতিক্রমিতার পরিচয় দিয়েছে। বড় পর্দার স্মার্টফোন সহজে একহাতে ব্যবহার করার বিষয়টি মাথায় রেখে এই জেশ্চার নেভিগেশন ঢেলে সাজানো হয়েছে।  

জেশ্চার নেভিগেশনে পরিবর্তন থাকছে; Image Source: Android Authority 

ডুয়েল মেসেঞ্জার

হুয়াওয়ে এবং শাওমির পরে স্যামসাং ওয়ান ইউআই-তে ডুয়েল মেসেঞ্জার ব্যবহারের সুযোগ রেখেছে। ডুয়েল মেসেঞ্জার ফিচার হচ্ছে- একটি মেসেঞ্জার অ্যাপে দুটি ভিন্ন একাউন্ট ব্যবহারের সুযোগ।

কোনো ব্যবহারকারী চাইলে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবু্‌ক মেসেঞ্জার, স্কাইপ, স্ন্যাপচ্যাটের মতো অ্যাপগুলো থেকে যেকোনো দুইটি একাউন্ট একই মেসেঞ্জার অ্যাপের মাধ্যমে ব্যবহার করতে পারবেন।

থাকছে ডুয়েল মেসেঞ্জার; Image Source: Android Authority 

এক হাতে ব্যবহার

ওয়ান ইউআই-এর ক্ষেত্রে শুধুমাত্র নেভিগেশন সংক্রান্ত সংযোজন নয়, বরং ব্যবহারকারীদের সুবিধার কথা চিন্তা করে স্যামসাং বড় পর্দাযুক্ত স্মার্টফোনগুলো সহজেই একহাতে ব্যবহার করার জন্য একটি বিশেষ মোডের ব্যবস্থা রেখেছে।

এক হাতে ব্যবহারের বিশেষ মোড; Image Source: Android Authority 

এই মোডে বিশেষ কিছু অ্যাপ এবং সেটিংস এক হাতেই পরিচালনা করা যায়। সমস্ত অ্যাপ্লিকেশনের ক্ষেত্রে বর্তমানে এই সুযোগ না থাকলেও এটি অবশ্যই ইতিবাচক।

এজ স্ক্রিন

এজ স্ক্রিন কিংবা এজ প্যানেল বিভিন্ন কোম্পানির স্মার্টফোনে অনেক আগে থেকেই থাকলেও ওয়ান ইউআই স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে স্যামসাং এই সুবিধাটি নতুন করে চালু করেছে। স্মার্টফোনের পর্দার প্রান্ত বা এজ (edge) থেকে আঙ্গুল দিয়ে একটি এজ-অপশন চালু করাই এই এজ-স্ক্রিন ফিচার।

এজ স্ক্রিন ফিচার; Image Source: Android Authority 

স্যামসাং ব্যবহারকারীদের কথা চিন্তা করে এই ফিচারটি ইচ্ছামত কাস্টমাইজ করার সুযোগ রেখেছে। কেউ চাইলেই তার প্রিয় সব অ্যাপ, নিউজ ফিড, প্রিয় কন্টাক্ট ইত্যাদি এই এজ-স্ক্রিনে সংযুক্ত করে নিতে পারবেন।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

This article is in the Bengali language. It's about Samsung One UI and its best features. Necessary sources have been hyperlinked accordingly.

Featured Image Source: Youtube 

Related Articles