আমরা আমাদের দৈনন্দিন কাজে প্রতিনিয়ত বিভিন্ন সফটওয়্যার বা প্রোগ্রাম ব্যবহার করে থাকি। পিসিতে হোক বা স্মার্টফোনে, বিভিন্ন কাজ, টাস্ক বা কোনো আসাইনমেন্ট সম্পন্ন করতে এই সফটওয়্যার বা প্রোগ্রামগুলোর কোনো বিকল্প নেই। 

এই প্রোগ্রামগুলো ব্যবহার করার জন্য আমরা অনেকক্ষেত্রেই শঠতা বা প্রতারণার আশ্রয় নিয়ে থাকি। আমরা বিভিন্ন সফটওয়্যারের পাইরেসি কপি ব্যবহার করি। এতে একদিকে যেমন সফটওয়্যার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানটি লোকসান গুনছে, আবার ঠিক তেমনি আমরা বিভিন্ন ধরনের নিরাপত্তাজনিত ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছি। অথচ এই পেইড প্রোগ্রামগুলোর পাইরেসি কপি অথবা ক্র্যাকড কপি ব্যবহার না করে খুব সহজেই আমরা বিনামূল্যে এসব প্রোগ্রামের বিকল্প ব্যবহার করতে পারি। আজকের লেখায় থাকছে বিনামূল্যের প্রয়োজনীয় সব প্রযুক্তি প্রোগ্রাম সম্ভার। 

আসুন, আমরা সফটওয়্যার পাইরেসিকে 'না' বলি; Image Source: Shutterstock

ফ্রি অনলাইন স্টোরেজ

স্মার্টফোন, ট্যাব কিংবা ল্যাপটপে অফলাইন স্টোরেজের পাশাপাশি অনলাইন স্টোরেজ আজকাল বেশ জনপ্রিয়। উন্নত দেশগুলোতে বেশ আগে থেকে ক্লাউড স্টোরেজ ব্যবস্থা ব্যবহৃত হয়ে আসলেও বর্তমানে বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশগুলোতে অনেকেই অনলাইন বা ক্লাউড স্টোরেজ ব্যবহার করছেন। ক্লাউড স্টোরেজের অন্যতম প্রধান সুবিধা হচ্ছে, এই অনলাইন স্টোরেজে গুরুত্বপূর্ণ ফাইল, ডকুমেন্ট ইত্যাদি জমা করে রাখলে পরবর্তীতে খুব সহজে পৃথিবীর যেকোনো কম্পিউটার অথবা স্মার্টফোন থেকে ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে এই ফাইল বা ডকুমেন্টগুলো ব্যবহার করা যায়।

আপনি যদি গুগল ব্যবহারকারী হয়ে থাকেন তবে গুগল ড্রাইভ অনলাইন স্টোরেজ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। গুগলের আরেকটি সার্ভিস ড্রপবক্সও বিকল্প একটি ক্লাউড স্টোরেজ ব্যবস্থা হতে পারে। ফ্রি ব্যবহারকারী হিসেবে গুগল ড্রাইভ ১৫ গিগাবাইট এবং ড্রপবক্স ২ গিগাবাইট ক্লাউড স্টোরেজ সুবিধা দিয়ে থাকে।

গুগল ড্রাইভ হতে পারে কার্যকরী অনলাইন স্টোরেজ; Image Source: CNET

অ্যাপল ব্যবহারকারীরা আইক্লাউডে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ৫ গিগাবাইট পরিমাণ তথ্য এবং ফাইল জমা করে রাখতে পারেন। এছাড়া, কেউ অ্যামাজন প্রাইম সদস্য হলে ৫ গিগাবাইট ক্লাউড স্টোরেজ এবং সীমাহীন ফটো স্টোরেজ সুবিধা পেতে পারেন। 

ফ্রি অফিস সফটওয়্যার

মাইক্রোসফট অফিস পৃথিবীর সবথেকে জনপ্রিয় অফিস সফটওয়্যার হলেও প্রোগ্রামটি কিন্তু ফ্রি নয়। আমরা বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় এই প্রোগ্রাম ব্যবহার করে থাকলেও কেউ চাইলে জনপ্রিয় এই সেবাটির বিকল্প ব্যবহার করতে পারেন, একদম বিনামূল্যেই।

LibreOffice মাইক্রোসফট অফিসের অন্যতম বিকল্প হিসেবে ব্যবহৃত হতে পারে। প্রোগ্রামটি সম্পূর্ণ ফ্রি এবং উন্মুক্ত। মাইক্রোসফট অফিসের যাবতীয় কাজ এই প্রোগ্রামটি দিয়ে বেশ ভালভাবেই করা সম্ভব। এছাড়া, মাইক্রোসফট অফিসের বিকল্প হিসেবে গুগলের জনপ্রিয় সেবা 'গুগল ডস' ব্যবহার করা যেতে পারে। মোবাইলবান্ধব এই প্রোগ্রামটি পিসিতেও সহজে ব্যবহার করা যায়। প্রোগ্রামটির ইন্টারফেস বেশ সহজ এবং ঝামেলাহীন।

Image Source: LibreOffice

ফ্রি ফটো এডিটিং সফটওয়্যার

'অ্যাডোবি' কোম্পানির ফটোশপসহ বেশ কিছু সফটওয়্যার ছবি সম্পাদনার জন্য পৃথিবীতে সবথেকে জনপ্রিয় হলেও অপ্রিয় সত্য এই যে, এই প্রোগ্রামগুলো কিন্তু একদমই ফ্রি নয়। সৎভাবে এই প্রোগ্রামগুলো ব্যবহার করতে চাইলে আমাদের অবশ্যই ডলার গুণতে হবে। কিন্তু ছবি সম্পাদনার জন্য এই ফটোশপের বেশ কিছু বিকল্প ভালো ফ্রি প্রোগ্রাম রয়েছে।

GIMP একটি উন্মুক্ত ছবি সম্পাদনার প্রোগ্রাম। ফটোশপের মতোই এই প্রোগ্রামটিতে ছবি সম্পাদনার জন্য প্রায় সব রকমের অপশনই রয়েছে। তাই কেউ চাইলে খুব সহজে এই প্রোগ্রামটি ডাউনলোড করে ছবি সম্পাদনার কাজ করতে পারেন। এক্ষেত্রে ছবি সম্পাদনার জন্য একদিকে যেমন কোনো অসৎ উপায় অবলম্বন করতে হবে না, আবার ঠিক তেমনি ছবি সম্পাদনার কাজগুলো আমরা সহজেই কাজ চালিয়ে নিতে পারবো। 

ফ্রি অডিওবুক

উন্নত দেশগুলোতে পেপারব্যাকের বিকল্প বিসেবে অডিওবুক অত্যন্ত জনপ্রিয়। অডিওবুকের বাড়তি সুবিধা হচ্ছে, অন্য কোনো কাজ (যেমন- গাড়ি চালানো, জিম, অফিস ইত্যাদি) করার সময় খুব সহজেই অডিওবুক শোনা সম্ভব।

অডিবল এবং আইটিউন্স অত্যন্ত জনপ্রিয় দুটি অডিওবুক সেবা হলেও এই দুটি প্রোগ্রাম ফ্রিতে ব্যবহার করা আদৌ সম্ভব নয়। এই প্রোগ্রাম দুটির মাসিক কিংবা বাৎসরিক ফি বেশ চড়াই বটে! এক্ষেত্রে Overdrive নামের প্রোগ্রামটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এই প্রোগামটির বিশেষত্ব হচ্ছে, খুব সহজে আঞ্চলিক লাইব্রেরি অথবা একাডেমিক প্রতিষ্ঠানের সাথে সংযুক্ত করা সম্ভব। প্রোগ্রামটিতে লাইব্রেরি কার্ড সংযুক্ত করার মাধ্যমে অডিওবুকের এক বিশাল সম্ভারে প্রবেশ করা সম্ভব।

এছাড়া আপনি যদি ক্লাসিক সাহিত্যে আগ্রহী হয়ে থাকেন তবে LibriVox প্রোগামটি আপনার জন্য একটি বেশ ভালো মানের ফ্রি অডিওবুক সেবা হতে পারে।

ফ্রি ইন্টারনেট স্পিড টেস্ট

আমরা প্রায়ই আমাদের বাসার ওয়াই-ফাই অথবা আমাদের প্রিয় স্মার্টফোনটিতে ইন্টারনেট স্পিড পরিমাপ করে থাকি। ব্যবহৃত ইন্টারনেট ঠিক কতটা সুস্থির, এই বিষয়টি ঠিকভাবে বোঝার জন্য এই স্পিড পরিমাপের কোন বিকল্প নেই। ইন্টারনেট স্পিড পরিমাপের জনপ্রিয় ওয়েবসাইট Speedtest.net অথবা এই কোম্পানির ‘স্পিডটেস্ট’ অ্যাপটির মাধ্যমে আমরা খুব সহজে আমাদের ব্যবহৃত ইন্টারনেটের মান যাচাই করে নিতে পারি।

স্পিড টেস্ট সাইটের মাধ্যমে ইন্টারনেট স্পিড মাপা সম্ভব; Image Source: Speed Test

ইন্টারনেটের মান যাচাই করার আরেকটি বেশ জনপ্রিয় সাইট হচ্ছে Fast.com। ভিডিও স্ট্রিমিং কোম্পানি নেটফ্লিক্সের মালিকানাধীন এই সাইটের মাধ্যমেও আমরা খুব সহজে ইন্টারনেটের গতি, মান, পিং ইত্যাদি যাবতীয় বিষয়গুলো যাচাই করে নিতে পারি।

নাসার ফ্রি সফটওয়্যার এবং ছবি সম্ভার

আমেরিকার মহাকাশ গবেষণা প্রতিষ্ঠান নাসার এক বিশাল উন্মুক্ত সফটওয়্যার এবং ছবির সম্ভার হচ্ছে। আনন্দের বিষয় হচ্ছে, এগুলোর অধিকাংশই বিনামূল্যে যে কেউ ব্যবহার করতে পারেন।

Image Source: LogoDesignLove

মহাকাশ বিষয়ে নাসার যাবতীয় সাফল্যের পেছনে তাদের নির্মিত নানা এপ্লিকেশনের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নাসার এযাবতকালের সামগ্রিক সাফল্যের অন্তত ৩০ ভাগ হচ্ছে তাদের বিস্ময়কর সব প্রোগ্রাম এবং এপ্লিকেশন। এছাড়া, নাসার পক্ষ থেকে বিভিন্ন সময়ে মহাকাশের বিভিন্ন বস্তু এবং গ্রহের ছবি সংবলিত একটি বিনামূল্যের আর্কাইভও রয়েছে। মহাকাশ সম্পর্কে কেউ জানতে চাইলে বা পড়াশোনা করতে চাইলে খুব সহজে এই টুলগুলো এবং ছবি সম্ভার কাজে লাগাতে পারেন। 

ফ্রি সাউন্ড এডিটর

সাউন্ড এডিট করার জন্য বেশ কিছু ভালো প্রোগ্রাম রয়েছে। কিন্তু এগুলোর অধিকাংশই ব্যবহার করতে হলে আমাদের প্রোগ্রামটি কিনে নিতে হবে। এক্ষেত্রে আমরা বিনামূল্যে সাউন্ড এডিটের কাজ করতে চাইলে Audacity প্রোগ্রামটি ব্যবহার করতে পারি। উন্মুক্ত এই প্রোগ্রামটি বেশ ভালো মানের এবং ব্যক্তিগত পর্যায়ের যাবতীয় প্রয়োজন মেটানোর জন্য এই প্রোগ্রামটিতে প্রয়োজনীয় সব ধরণের ফিচারই রয়েছে।

ফ্রি এই সফটওয়্যারটি দিয়ে সাউন্ড রেকর্ডিং, ব্যাকগ্রাউন্ড নয়েজ দূরীকরণসহ ফ্রি পডকাস্ট সুবিধাও পাওয়া সম্ভব।

ফ্রি ফায়ারওয়াল

এন্টিভাইরাস অথবা ম্যালওয়্যার নিরাপত্তা প্রোগ্রামের পাশাপাশি আমাদের ব্যবহৃত কম্পিউটারকে হ্যাকার বা সাইবার আক্রমণের হাত থেকে বাঁচাতে ফায়ারওয়াল প্রোগ্রামগুলোর ভূমিকা বেশ গুরুত্বপূর্ণ। যদিও উইন্ডোস পিসিগুলোতে নিজস্ব ফায়ারওয়াল প্রোগ্রাম দেয়া থাকে, এক্ষেত্রে কিন্তু বেশ কিছু বেশ ভালো মানের সফটওয়্যার রয়েছে।

TinyWall প্রোগ্রামটি বেশ ভালো মানের একটি ফায়ারওয়াল প্রোগ্রাম। বিনামূল্যের এই প্রোগ্রামটি পুরোপুরি উন্মুক্ত, হালকা এবং কম্পিউটারকে একদমই স্লো করে না। প্রোগ্রামটির অন্যতম বিশেষত্ব হচ্ছে, প্রোগ্রামটি কোনো ধরনের বিরক্তিকর ম্যাসেজ প্রদর্শন না করেই নিজে থেকে যাবতীয় কাজ করে থাকে।

ফ্রি ফায়ারওয়াল প্রোগ্রাম হিসেবে ZoneAlarm-ও বেশ কার্যকরী। বিনামূল্যের প্রোগ্রাম হিসেবে এটিও যে কেউ ব্যবহার করতে পারেন।

ফ্রি ভিডিও এডিটর

ভিডিও সম্পাদনার জন্য 'অ্যাডোবি' কোম্পানির বেশ কিছু প্রোগ্রাম অত্যন্ত জনপ্রিয় হলেও এগুলো মূলত ফ্রি নয়। তবে ব্যক্তিগত পর্যায়ে ভিডিও সম্পাদনা করার জন্য বেশ কিছু বিনামূল্যের প্রোগ্রাম রয়েছে।

এক্ষেত্রে Lightworks, VSDC নামের বিনামূল্যের সফটওয়্যারগুলো দিয়ে ভালো মানের ভিডিও সম্পাদনা করা সম্ভব। উল্লেখ্য,  The Wolf of Wall Street’ এর মতো নামকরা চলচিত্র সম্পাদনার কাজে Lightworks ব্যবহার করা হয়েছিল।

লাইট ওয়ার্কস; Image Source: PC World

ঠিক এভাবে থ্রিডি ডিজাইনিং করার জন্য পেইড প্রোগ্রাম AutoCAD এর পরিবর্তে বিনামূল্যের প্রোগ্রাম SketchUp Make বা EasyHome Homestyler ব্যবহার করা যেতে পারে। বিনামূল্যের এই প্রোগ্রাম দুটি দিয়ে ব্যক্তিগত যাবতীয় কাজ সম্পন্ন করা সম্ভব।

ফ্রি গ্রামার চেক এবং লেখার প্রোগ্রাম

লেখার ক্ষেত্রে আমরা প্রায়ই মাইক্রোসফট ওয়ার্ড ব্যবহার করে থাকি। প্রোগ্রামটি অত্যন্ত জনপ্রিয় হলেও ফ্রি নয়। এক্ষেত্রে ইংরেজি লেখার জন্য আমরা অত্যন্ত জনপ্রিয় ফ্রি প্রোগ্রাম Grammarly ব্যবহার করতে পারি। প্রোগ্রামটির সুবিধা হচ্ছে, এর মাধ্যমে গ্রামারের ভুলগুলো খুব সহজে শুধরে নেওয়া সম্ভব।

Image Source: Tools and Toy

ইংরেজি লেখার ক্ষেত্রে Hemingway Editor প্রোগ্রামটিও বেশ জনপ্রিয়। দীর্ঘ বাক্য, কঠিন শব্দগুলো এই প্রোগ্রামটি ব্যবহার করে সরলীকরণ করা সম্ভব। এছাড়া, খুব সাধারণ ইন্টারফেসে লেখার জন্য FocusWriter প্রোগ্রামটি ব্যবহার করা যেতে পারে। বিরক্তিহীন লেখার জন্য প্রোগ্রামটি পরিচিত।

ফ্রি অস্থায়ী ইমেইল সার্ভিস

অনেক সময়েই আমাদের ঠিক একবারের জন্য কোনো ইমেইল আড্রেস ব্যবহার করার প্রয়োজন পড়ে। অপেক্ষাকৃত কম গুরুত্বপূর্ণ এসব ক্ষেত্রে আমরা আমাদের স্থায়ী ইমেইলটি ব্যবহার না করে ফ্রি অস্থায়ী ইমেইল সার্ভিস ব্যবহার করতে পারি। এক্ষেত্রে অস্থায়ী ইমেইল ব্যবস্থা হিসেবে Mailinator অথবা Maildrop ব্যবহার করা যেতে পারে।

Featured Image Source: The Verge