• শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অঘোষিত সেমিফাইনালে সাকিবকে দলে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী বাংলাদেশ।
  • গতকাল ভারতের বিপক্ষে পরাজয়ের স্বাদ পাওয়া বাংলাদেশের জন্য এটি সুখবর।

গত ২৭শে জানুয়ারি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ত্রিদেশীয় সিরিজে ফিল্ডিং করতে গিয়ে কনিষ্ঠ আঙুলে চোট পান সাকিব আল হাসান। প্রথমে হালকাভাবে নিলেও ধীরে ধীরে অবস্থার অবনতি হতে থাকে সাকিবের আঙুলের। তুলনামূলক বেশি সময় লাগলেও চোট কাটিয়ে উঠেছেন তিনি।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ফিল্ডিং করার সময় চোট পেয়েছিলেন সাকিব আল হাসান; Source: Associated Press

ইনজুরির কারণে সাকিব আল হাসান শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ মিস করেছিলেন। তবে নিদাহাস ট্রফিতে তাকে দলে পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী ছিল বিসিবি। তাকে অধিনায়ক ঘোষণা করে টি-টোয়েন্টিতে দল ঘোষণা করেছিল বাংলাদেশ। টুর্নামেন্টের প্রথমদিকে তাকে না পাওয়া গেলেও অন্তত ২-৩ ম্যাচে তার খেলার সম্ভাবনা ছিল ভেবে তাকে দলের সাথে রাখার সিদ্ধান্ত নেয় বিসিবি।

সাকিবের ইনজুরিকে প্রথমে হালকাভাবে নেওয়ার কারণে বিপদটা আরও বাড়ে। অবস্থার উন্নতি না দেখে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দেখাতে থাইল্যান্ড যান সাকিব। সেখান থেকে ফিরে দলের আত্মবিশ্বাস বাড়াতে শ্রীলঙ্কায় দলের সাথে যোগ দেন তিনি। শ্রীলঙ্কা থেকে আবারও চিকিৎসার জন্য অস্ট্রেলিয়া যান তিনি। অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরে দেশে এসে স্বাভাবিকভাবে অনুশীলন করেন সাকিব আল হাসান।

ইনজুরির পর মূল একাদশে না থাকলেও দলের সাথেই ছিলেন সাকিব আল হাসান; Source: Raton Gomes

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আজ বিকালে নিদাহাস ট্রফি খেলতে কলোম্বোতে পৌঁছানোর কথা সাকিবের। আগামীকাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে অঘোষিত ‘সেমিফাইনালে’ সাকিবকে দলে পাওয়ার ব্যাপারেও আশাবাদী বাংলাদেশ।

ফিচার ইমেজ: The Daily Star