• অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের জন্য নিষিদ্ধ হলেন জিম্বাবুয়ের বাঁহাতি পেসার ব্রায়ান ভিটোরি।
  • তৃতীয়বারের মতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হলো ভিটোরিকে।
  • আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের আর কোনো ম্যাচে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না তিনি।

জিম্বাবুয়ের বাঁহাতি পেসার ব্রায়ান ভিটোরিকে অবৈধ বোলিং অ্যাকশনের নিষিদ্ধ করলো আইসিসি। গত দু’বছরে এই নিয়ে তিনবার নিষিদ্ধ হলেন তিনি। পুনরায় বোলিং অ্যাকশন সংশোধন করে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে পারবেন তিনি।

বোলিং করার সময় কনুই ১৫ ডিগ্রির বেশি বাঁকানোর কারণে ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে প্রথমবারের মতো আম্পায়াররা সন্দেহ প্রকাশ করে রিপোর্ট দেন। ফলে ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রথমবারের মতো নিষিদ্ধ হন তিনি।
২০১৬ সালের জুনে তার বোলিং অ্যাকশন বৈধ ঘোষণা করা হয়। একই বছরের নভেম্বরে আবারও তার বোলিং নিয়ে আপত্তি জানান আম্পায়াররা।

আম্পায়ারদের রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে তাকে ১২ মাসের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।
২০১৮ সালের জানুয়ারিতে পুনরায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বোলিং করার ছাড়পত্র পান তিনি। ফেব্রুয়ারিতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে খেলার পর নেপালের বিপক্ষে আইসিসি বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের প্রথম ম্যাচের পর আম্পায়াররা তার বোলিং অ্যাকশন নিয়ে আবারও রিপোর্ট দেয়।

তৃতীয়বারের মতো নিষিদ্ধ হলেন ভিটোরি; Source: AFP

আম্পায়ারদের রিপোর্টের ভিত্তিতে এবং দুই সদস্যের আইসিসির ‘হিউম্যান মুভমেন্ট স্পেশালিষ্ট’ প্যানেল ম্যাচের ভিডিও ফুটেজ দেখে রিপোর্ট দিলে তাকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।

ব্রায়ান ভিটোরি আফগানিস্তানের বিপক্ষে দুই রানের জয়ে বড় ভূমিকা পালন করেন। শেষ ব্যাটসম্যান শাহপুর জাদরানের উইকেট সহ দুই উইকেট শিকার করেন। অভিষেক দুই ওয়ানডেতে ১০ উইকেট শিকার করে রেকর্ড সৃষ্টি করা ভিটোরি এখন পর্যন্ত ২৪টি ওয়ানডেতে ৩২ উইকেট, চারটি টেস্টে ১২ উইকেট এবং ১১টি টি-টুয়েন্টিতে চার উইকেট শিকার করেছেন।

ফিচার ইমেজ: Getty Images