• অভিনেত্রী এমা ওয়াটসন যৌন হয়রানির বিরুদ্ধে প্রচারাভিযানের জন্য যুক্তরাজ্যের জাস্টিস ও ইকুয়ালিটি ফান্ডকে ১০ লক্ষ টাকা দান করেছেন
  • তহবিলটি ১৯০ জন নারী আরও প্রায় ১৬০ জন পণ্ডিত, প্রতিবাদী ও দাতব্য কর্মীর সহযোগে গড়ে তোলেন
  • এটি যৌন নির্যাতন ও অন্যায়ভাবে সুবিধা গ্রহণ থেকে অব্যাহতি এবং যৌন হয়রানির স্বীকার নারীদের সাহায্যের লক্ষ্যে গঠিত

এমা ওয়াটসন; Source: independent.co.uk

গত রবিবার কর্মক্ষেত্রে নারীদের উপর যৌন হয়রানি বন্ধের জন্যে একটি খোলা চিঠিতে প্রায় ২০০ ব্রিটিশ ও আইরিশ তারকা স্বাক্ষর করেন। এদের মাঝে এমা ওয়াটসনসহ এমা টমসন, গেমা আর্টারটন, কিরা নাইটলি, নাওমি হ্যারিস, ক্যারে মুলিগান, গেমা চ্যানের মতো অভিনেত্রীরা রয়েছেন। এই চিঠিতে বলা হয়, রবিবারে যুক্তরাজ্যে অনুষ্টিত বাফটা অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানটি বিভিন্ন দেশ থেকে একত্র হয়ে তারকাদের একতা ও সংহতি উদযাপন এবং এই আন্দোলনকে আন্তর্জাতিক রূপ দান করার এক অসাধারণ সময়। ২০১৮ সালকে যৌন হয়রানির জন্য শেষ বছর হিসেবে গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয় এই চিঠিতে।

এমা ওয়াটসন তহবিলটির প্রথম দানকর্তাদের একজন। তিনি ছাড়াও সংস্থাটিতে এমা টমসন, কিরা নাইটলি ও টম হিডেলস্টোন ১০,০০০ থেকে ৫০০ পাউন্ড অর্থ দান করেন। এই আন্দোলনকে যুক্তরাষ্ট্রের ‘টাইমস আপ’ আন্দোলনের প্রতিক্রিয়া হিসেবে দেখা হচ্ছে। এটি হলিউডের প্রযোজক হার্ভি ওয়াইনস্টিনের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগের কারণে শুরু হয়।

তহবিলে দান করার পরে এমা ওয়াটসন তার অভিমত জানান, এক-দুইজন খারাপ মানুষের কারণে হওয়া যৌন হয়রানিকে হয়তো অগ্রাহ্য করা যায়। কিন্তু যুক্তরাজ্যের পরিসংখ্যান আরও বৃহৎ ও সংগঠনমূলক সমস্যার দিকে নির্দেশ করে

গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে অভিনেত্রীরা কালো পোশাক পরেন;  Source: The Sun

তিনি বলেন,

বাফটা অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে প্রায় সকল অভিনেত্রীই ‘টাইমস আপ’ ও ‘মি টু’ আন্দোলনের সাথে সংহতি প্রকাশ করে কালো পোশাক পরিধান করেন। এর আগে গোল্ডেন গ্লোব অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানেও অভিনেত্রীরা কালো পোশাক পরিধান করেন।

ফিচার ইমেজ: indiewire.com