ফ্লোরিডার একটি হাইস্কুলে গুলিবর্ষণ, নিহত অন্তত ১৭ জন

  • গত বুধবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ফ্লোরিডার একটি হাই স্কুলে ১৯ বছর বয়সী এক যুবক গুলিবর্ষণ চালায়
  • তারা ঐ আকস্মিক হামলায় অন্তত ১৭ শিক্ষার্থী নিহত হয়েছে বলে জানা যায়।
  • ঘটনার পরপরই হামলাকারী যুবককে আটক করে স্থানীয় পুলিশ।
  • এর আগে ঐ যুবক তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে বিভিন্ন আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে ছবি পোস্ট করে।

Source: abc news

ব্রওয়ার্ড কাউন্টি শেরিফ স্কট ইসরায়েল জানান, গত বুধবার ফ্লোরিডার স্থানীয় সময়ানুযায়ী বেলা ২.৩০ এর দিকে পার্কল্যান্ডে অবস্থিত মার্জরী স্টোনম্যান ডগলাস হাই স্কুলে হামলার ঘটনাটি ঘটে।

Source: abc15

হামলাকারী ঐ যুবকের নাম নিকোলাস ক্রুজ। জানা যায়, সে ঐ হাই স্কুলটির প্রাক্তন একজন শিক্ষার্থী। এর আগে তাকে স্কুল থেকে নিয়ম-শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বহিষ্কার করা হয় বলে জানায় তার স্কুল কর্তৃপক্ষ এবং তার সহপাঠীরা।

ব্রওয়ার্ড কাউন্টি স্কুলের সুপারিন্টেনডেন্ট রবার্ট রুনসি বলেন,

এই দিনটিতে আমরা মানবতার সবচেয়ে খারাপ দিকটির দেখা পেলাম। আগামীকাল থেকে এই ভীতিকর ঘটনাটি সামাল দিতে এগিয়ে যাওয়ার জন্য সকলে একসঙ্গে কাজ করে মানবতার শ্রেষ্ঠ দিকটি খুঁজে আনব।

অন্য এক বার্তায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান,

ভয়াবহ ফ্লোরিডা হামলার শিকারদের পরিবারের প্রতি আমার প্রার্থনা এবং সহমর্মিতা। কোনো শিশু, শিক্ষক বা অন্য কেউ আর কখনও আমেরিকান স্কুলে অসুরক্ষিত বোধ করবে না।

তদন্তকারীরা মনে করছেন, ক্রুজ শ্রেণীকক্ষের বাইরে শিক্ষার্থীদের বাইরে বের করে ফেলতে এবং হতাহতের সংখ্যা বৃদ্ধির জন্য ফায়ার অ্যালার্ম বেল বাজায়। সিএনএন এর একটি রিপোর্টে এটি জানানো হয়। কিন্তু স্কুলে ইতিমধ্যে অ্যালার্মটি পরীক্ষা করা হচ্ছিল বলে অনেক শিক্ষার্থী ভাবে এবারো তা-ই হচ্ছে।

রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে জানানো হয়, তার সহপাঠীরা তার ওপর বেশ বিরক্ত থাকত। তার তেমন কোনো বন্ধুও ছিল না, আর সে খানিকটা পাগলাটে আর মানসিকভাবে অসুস্থ। আগ্নেয়াস্ত্র তার অনেক পছন্দ ছিল।

Source: Sky News

ইসরায়েল জানান,

আমরা ইতিমধ্যেই তার ওয়েবসাইটগুলি এবং সামাজিক মিডিয়াতে তার কার্যক্রম মুছে ফেলা শুরু করেছি।

টিভিতে প্রচারিত এক ভিডিও চিত্রে দেখা যায়, উত্তেজিত শিক্ষার্থীরা ভীত-সন্ত্রস্ত অবস্থায় স্কুল থেকে পালিয়ে আসছে। সব মিলিয়ে এক অস্থিতিশীল এবং ভয়াবহ এক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।

একটি বিশ্লেষণ অনুযায়ী, ২০১৬ সালে ৩১,০০০ জনসংখ্যার পার্কল্যান্ডকে ফ্লোরিডার সবচেয়ে নিরাপদ শহর হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছিল। দক্ষিণ ফ্লোরিডা শহর সাতটি সহিংস অপরাধের ঘটনা এবং ১৮৬টি অন্যান্য অপরাধের ঘটনা আগের বছর ঘটে।

ফিচার ইমেজ : WTSP.com

Related Articles