রাশিয়ায় যাত্রীবাহী বিমান বিধ্বস্ত, ৭১ আরোহীর সবাই নিহত

  • রাশিয়ার রাজধানী মস্কো থেকে ওরস্ক শহরে যাওয়ার সময় একটি রাশিয়ান যাত্রীবাহী প্লেন বিধ্বস্ত হয়েছে।
  • প্লেনটিতে থাকা ৭১ জন আরোহীর সবাই নিহত হয়েছে বলে জানিয়েছে রাশিয়ার বার্তাসংস্থাগুলো।
  • মস্কোর দোমোদেদোভো এয়ারপোর্ট থেকে যাত্রা শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়।
  • দুর্ঘটনার কারণ সম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি।

মস্কোর দক্ষিণ-পূর্বে বিমানের ধ্বংসাবশেষ; Source: REUTERS

গতকাল আন্তর্জাতিক সময় রাত ১১টা ২২ মিনিটে মস্কোর দোমোদেদোভো এয়ারপোর্ট থেকে কাজাকস্তান সীমান্তবর্তী ওরস্ক শহরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করে সারাতোভ এয়ারলাইন্সের আন্তোনভ আন-১৪৮ প্লেনটি। যাত্রা শুরু করার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্লেনটি আকাশের বুক থেকে অদৃশ্য হয়ে যায়। ফ্লাইট নজরদারি সংস্থা ‘ফ্লাইট রাডার ২৪‘ জানিয়েছে, যাত্রা শুরু করার পাঁচ মিনিট পরেই প্লেনটি ঘন্টায় ৬০ কিলোমিটার বেগে নিচের দিকে পড়তে শুরু করে এবং মস্কো থেকে ৮০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্বে আরগুনোভো শহরে বিধ্বস্ত হয়।

প্লেনটিতে মোট ৭১ জন আরোহী ছিল। এদের মধ্যে ৬৫ জন যাত্রী এবং ৬ জন ক্রু। আরোহীদের কারো বেঁচে থাকার সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছে রাশিয়ার ইন্টারফ্যাক্স নিউজ এজেন্সি। রাশিয়ার তাস এজেন্সি জানিয়েছে, রাশিয়ার জরুরি বিভাগের সদস্যরা প্লেনটির ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেয়েছেন। স্থানটি পাহাড়ি অঞ্চল হওয়ায় সেখানে গাড়িতে করে পৌঁছানো সম্ভব না। তাই অন্তত ১৫০ উদ্ধারকর্মী পায়ে হেঁটে ঘটনাস্থলের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছেন

প্লেনটি বিধ্বস্ত হওয়ার কারণ সম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি। রাশিয়ার পরিবহন মন্ত্রীর বরাত দিয়ে ইন্টারফ্যাক্স নিউজ জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে বিভিন্ন ধরনের কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এর মধ্যে যান্ত্রিক ত্রুটি, খারাপ আবহাওয়া এবং পাইলটের ভুলের সম্ভাবনাও বিবেচনা করা হচ্ছে। প্লেনটি রাশিয়ায় নির্মিত। ৭ বছর আগে এটি নির্মিত হয়েছিল, তবে সারাতোভ এয়ারলাইনস অন্য একটি রাশিয়ান এয়ারলাইনস থেকে মাত্র ১ বছর আগে এটি ক্রয় করেছিল। ঘটনার কারণ উদঘাটনের জন্য রাশিয়া ইতোমধ্যেই একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

ফিচার ইমেজ- STRINGER / REUTERS

Related Articles